মেইন ম্যেনু

জিম্বাবুয়ের লক্ষ্য ২৪২

বড় কোনো জুটি হয়নি। ইমরুল কায়েসের ৭৬ রান ছাড়া অন্য কেউ বড় ইনিংসও খেলতে পারেননি। ফলে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশও বড় সংগ্রহ পায়নি।

আগে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ২৪১ রান করেছে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। জয়ের জন্য জিম্বাবুয়েকে করতে হবে ২৪২ রান।

সোমবার মিরপুর-শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক এল্টন চিগুম্বুরা।

ব্যাট করতে নেমে ইমরুল কায়েসকে নিয়ে শুরুটা ভালোই করেছিলেন তামিম ইকবাল। কিন্তু উইকেটে থিতু হয়েও আউট হয়ে যান তামিম। জিম্বাবুয়ের পেসার তিনাশে পানিয়াঙ্গারার বলে উইকেটরক্ষ রেগিস চাকাভার গ্লাভসবন্দি হন এই বাঁহাতি। ইমরুলের সঙ্গে তার উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৩২ রান। ২৫ বলে ৩টি চারে ১৯ রান করেন তামিম।

তামিমের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন প্রথম ওয়ানডেতে ওপেনিংয়ে নেমে ডাক মারা লিটন দাস। কিন্তু এদিন তিন নম্বরে নেমেও স্বাগতিক দর্শকদের হতাশ করেন এই ডানহাতি। ছক্কা মেরে রানের খাতা খুললেও ৭ রানের বেশি করতে পারেননি। তামিমের মতোই পানিয়াঙ্গারার বলে চাকাভাকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন লিটন।

৪৭ রানের মধ্যে তামিম ও লিটনের উইকেট হারানোর পর মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েছিলেন ইমরুল। কিন্তু মাহমুদউল্লাহ সুবিধা করতে পারেননি। মাহমুদউল্লাহকে (৪) চাকাভার ক্যাচ বানিয়ে ৩২ রানের জুটি ভাঙেন স্পিনার গ্রায়েম ক্রেমার।

এক প্রান্তে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়লেও ফিফটি তুলে নেন অন্য প্রান্ত আগলে রাখা ইমরুল। ৫৪ বলে ফিফটি পূর্ণ করতে ৪টি চার মারার পাশাপাশি ৩টি ছক্কা হাঁকান এই বাঁহাতি।

ফিফটি করা ইমরুলকে নিয়ে দলকে ভালোই এগিয়ে নিচ্ছেলেন মুশফিকুর রহিম। তবে দলীয় ১২৭ রানে মুশফিক (২১) ফিরে গেলে আবার চাপে পড়ে বাংলাদেশ। ক্রেমারের বলে শর্ট থার্ডম্যানে লুক জংইউকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন প্রথম ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান মুশফিক।

এরপর এক প্রান্ত আগলে রাখা ইমরুলও বিদায় নেন দলীয় ১৫১ রানে। শন উইলিয়ামসের একটি বল লং অনের ওপর দিয়ে বিশাল একটি ছক্কা হাঁকিয়ে পরের বল আবার উড়িয়ে সীমানা ছাড়া করতে যান ইমরুল। কিন্তু এবার লং অফে ক্রেমারের হাতে ধরা পড়েন তিনি। ৮৯ বলে ৬ চার ও ৪ ছক্কায় ৭৬ রান করেন সাকিবের বদলে একাদশে আসা ইমরুল।

ইমরুলের বিদায়ে দল চাপে পড়লেও ষষ্ঠ উইকেটে নাসির হোসেনকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন সাব্বির রহমান। দুজন মিলে দলকে ভালোই এগিয়ে নিচ্ছিলেন। কিন্তু দলীয় ১৯৩ রানে জংউইয়ের অফ সাইডের বাইরের একটি বলে ব্যাট চালাতে গিয়ে চাকাভার হাতে ধরা পড়েন সাব্বির। ফলে নাসিরের সঙ্গে তার ৪২ রানের জুটিও ভেঙে যায়। ৪০ বলে ৪টি চারের সাহায্যে ৩৩ রান করেন সাব্বির।

প্রথম ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়েকে ১৪৫ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। আজ জিতলে এক ম্যাচ হাতে রেখেই তিন ম্যাচের সিরিজটি নিজেদের করে নেবে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। সেই সঙ্গে ঘরের মাঠে টানা পাঁচটি ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পাশাপাশি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নবম দ্বিপক্ষীয় সিরিজও নিশ্চিত হবে।

আজ বাংলাদেশ দলে একটি পরিবর্তন এসেছে। সাকিব আল হাসানের বদলে একাদশে এসেছেন ইমরুল কায়েস। জিম্বাবুয়ে দলেও একটি পরিবর্তন হয়েছে। রিচমন্ড মুতুমবামির চোটের কারণে একাদশে এসেছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রেগিস চাকাভা।

বাংলাদেশ একাদশ : মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, আরাফাত সানী, আল-আমিন হোসেন ও মুস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে একাদশ : এল্টন চিগুম্বুরা (অধিনায়ক), চামু চিবাবা, রেগিস চাকাভা, ক্রেইগ আরভিন, শন উইলিয়ামস, সিকান্দার রাজা, লুক জংউই, গ্রায়েম ক্রেমার, তিনাশে পানিয়াঙ্গারা, তাউরাই মুজারাবানি ও মেলকম ওয়ালার।






মন্তব্য চালু নেই