মেইন ম্যেনু

জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে কলারোয়া প্রেসক্লাবে হত্যা মামলার বাদির সংবাদ সম্মেলন

জীবনের নিরাপত্তার দাবিতে সাতক্ষীরার কলারোয়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন একটি পরিবার। মঙ্গলবার দুপুরের দিকে তারা এ সংবাদ সম্মেলন করেন।
একটি হত্যা মামলার বাদি উপজেলার রায়টা গ্রামের মৃত ইউসুফ আলী বিশ্বাসের ছেলে ইউনুস আলী বিশ্বাস সেই মামলার আসামী ও তাদের আত্মীয় স্বজনদের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনটি করেন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, চলতি বছরের ২৭ অক্টোবর ২.৩০ ঘটিকার সময় গাছ কাটতে বাধা দেয়ায় তার ছেলে ইমামুল হককে একই গ্রামের বাবলু বিশ্বাস, আব্দুল হামিদ, আব্দুস সালাম, লতিফা খাতুন, আকলি ও অজিয়ার রহমান সংঘবদ্ধ হয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে তাদের (আসামি) বিরুদ্ধে ওই তারিখেই একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আসামীরা এরপর থেকে পলাতক রয়েছে।
কিন্তু ১নং আসামী বাবলুসহ তার বড় বোন জামাই রায়টা গ্রামের নজরুল শেখের ছেলে হারান শেখ, তার স্ত্রী রেহেনা খাতুন, শ্বাশুড়ি রাবেয়া খাতুন বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মাধ্যমে প্রাণ নাশের হুমকী-ধামকী ও মামলা প্রত্যাহারের জন্য চাপ প্রয়োগ করছে। মামলা না উঠালে মামলা চালানোর জন্য ২ লাখ টাকা চাঁদাও দাবি করেন তারা।
তিনি আরো বলেন, ১নং আসামী বাবলু ও তার উল্লেখিত আত্মীয় স্বজনরা তার বাড়িতে ভারতীয় মালামাল ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র রেখে মিথ্যা ও হয়রানীমূলক মামলায় ফাঁসানোর পায়তারা চালাচ্ছে।
তিনি আরো বলেন, এমনকি প্রায় রাতে হারানের নেতৃত্বে অপরিচিত লোকজন তার বাড়ির মধ্যে মোটর সাইকেল যোগে প্রবেশ করে হুমকি ধামকি দিয়ে যাচ্ছে। তাছাড়া মাঝে মধ্যে তার বাড়ির আশেপাশে গভীর রাতে মুখোশপরা লোকজনের আনাগোনা দেখা যাচ্ছে।
তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তার এবং তার পরিবারের লোকজনের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে এবং বিষয়টি আইন শৃঙ্খলাসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাদির স্ত্রী নাজমা খাতুন, ছেলে ইকরামুল হক, ছেলের বউ রুমা খাতুন ও শিশু সন্তান সাদিয়া খাতুন।






মন্তব্য চালু নেই