মেইন ম্যেনু

জীবিত সাবেক প্রধানমন্ত্রীর ‘মৃত্যুতে’ শোক পালন হলো স্কুলে!

ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপেয়ি মারা গিয়েছেন। আর তাঁর মৃত্যুতে তড়িঘড়ি করে ছুটি দিয়ে দেওয়া হলো স্কুলে। ছুটি দেওয়ার আগে ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষকরা মিলে এক মিনিট নীরবতা পালনও করে নিলেন। ভুল করে এমন অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে ভারতের ওড়িশা রাজ্যের এক স্কুলে।

ঘটনার দিন অন্য একটি স্কুলে ট্রেনিংয়ে যোগ দিয়েছিলেন প্রধান শিক্ষক। সেখান থেকে তিনি তাঁর স্কুলে ফোন করে অটল বিহারির মৃত্যুর খবর জানিয়ে আনুষ্ঠানিকতা পালনের নির্দেশ দেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপেয়ির প্রয়াণে নীরবতা পালন করেন স্কুলের সব ছাত্র-ছাত্রীসহ অন্যান্য শিক্ষকরা। তারপর স্কুল ছুটি ঘোষণা করা হয়।

এরই মধ্যেই বাজপেয়ির মৃত্যুতে শোক পালন করে স্কুল ছুটিও দিয়ে দেওয়ায় ঝামেলায় পড়েছেন ভারতের ওড়িশা রাজ্যের বালাসোরের ওই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। এই ঘটনার কথা জানাজানি হতেই স্থানীয় মানুষজন ওই প্রধান শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

উল্লেখ্য, গত কয়েক বছর ধরে শারীরিকভাবে যথেষ্ট অসুস্থ রয়েছেন বাজপেয়ি। তাঁকে জনসমক্ষে দেখাও যায় না খুব একটা। তাই শোনা কথাকেই সত্যি বলে ধরে নিয়ে এই অঘটন ঘটিয়েছেন ওই প্রধান শিক্ষক।

অন্য একজন শিক্ষকের কাছ থেকে অটল বিহারির মৃত্যুর গুজব শুনেছিলেন দাবি করে এরই মধ্যে ক্ষমা চেয়েছেন ওই প্রধান শিক্ষক। তবে জেলা প্রশাসন ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য শিক্ষা কর্তৃপক্ষকে চিঠি পাঠিয়েছে।

এর আগে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি আবদুল কালাম জীবিত থাকাকালে কালামের প্রয়াণের খবর পেয়ে তাঁর ছবিতে মালা দিয়ে ঘোর বিতর্কে পড়েছিলেন ঝাড়খণ্ড রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী নীরা যাদব। ওই ঘটনার কিছুদিন পরেই মারা যান কালাম। এবার ফের সেই একই ভুল করে বাজপেয়ির মারা যাওয়ার খবর শুনে আস্ত একটা স্কুলে শোক পালন ও ছুটি ঘোষণা করায় তীব্র নিন্দার ঝড় উঠেছে বিভিন্ন মহলে।






মন্তব্য চালু নেই