মেইন ম্যেনু

‘জুস’ খেয়ে প্রাণ হারাল খালা-ভাগনি

সিলেট: জৈন্তাপুর উপজেলায় দুই স্কুলছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। জুস খাওয়ায় তাদের মৃত্যু ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হচ্ছেন- কানাইঘাট উপজেলার ধলকিরাই গ্রামের ইমরানা বেগম (১৫) এবং জৈন্তাপুর উপজেলার পূর্বলক্ষ্মী প্রসাদ (পাতন) গ্রামের রসনা বেগম (১৪)। সম্পর্কে তারা খালা-ভাগনি। তারা দু’জনই অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে জৈন্তাপুরের চতুলে এক আত্মীয়ের বাড়িতে যাওয়ার জন্য দরবস্ত থেকে সিএনজি অটোরিকশায় (সিলেট-থ-১৩-১১১৪) ওঠে ইমরানা ও রসনা। অটোরিকশায় বসে তারা জুস পান করে। দরবস্ত ইউনিয়ন পরিষদের সামনে যাওয়ার পর ইমরানা অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায়। রসনাও ছটফট করতে থাকে।

এসময় স্থানীয়রা দ্রুত তাদেরকে জৈন্তাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। তবে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের উভয়কেই মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সফিউল কবির এবং অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) জালাল উদ্দিন, এসআই মিন্টু চৌধুরী, দরবস্ত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কামাল আহমদ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপস্থিত হন।

ওসি সফিউল কবির জানান, ঠিক কি কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। তবে জুস খেয়েছে তারা। এরমধ্যে বিষক্রিয়া থাকতে পারে। আলামত স্বরূপ সিএনজি অটোরিকশাতে পাওয়া আমের জুসের রয়ে যাওয়া অংশ সংরক্ষণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, অধিকতর নিশ্চয়তার জন্য লাশ দুটি সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই