মেইন ম্যেনু

জেএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ না পাওয়ায় স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা

হামিদা আক্তার,  ডিমলা, নীলফামারী : নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় এক স্কুল ছাত্রী এবারের জেএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পয়েন্ট না পাওয়ায় বাবা-মায়ের বকুঁনী খেঁয়ে মনের অভিমানে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। জানা গেছে, গত ২৯ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল রেব হলে ঐ ছাত্রীর জিপিএ ৩.৪১ পয়েন্ট ফলাফলে আসে। এ ঘটনায় উক্ত ছাত্রীর বাবা-মা একটু রাগারাগি করে বকুঁনী দেন। জিপিএ-৫ পয়েন্ট পায়নি কেন সে। বাবা-মায়ের তুচ্ছ এ কথার জেরে মনের ভিতর অভিমান তৈরী হলে ৩০ ডিসেম্বর শুক্রবার সকালে আলুর ক্ষেতে দেওয়ার জন্য বাড়ীতে রাখা শিকড় নামক এক প্রকার ”বিষ”পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে স্কুল ছাত্রী পুষ্পা রানী রায় (১৫)। সে উপজেলার খালিশা চাপানী ইউনিয়নের কাকিনা চাপানী গ্রামের শ্রী শুবল রায়ের কন্যা। আত্মহত্যার চেষ্টায় ব্যর্থ কিশোরী ছাত্রীর পরিবার থেকে জানানো হয়, তাকে তেমন কোন কিছুই বলা হয়নি। শুধু তার বাবা বলেছে এতদিন ধরে প্রাইভেট ও কোচিং পড়ে এই রেজাল্ট ? তোমার জিপিএ-৫ পয়েন্ট পাওয়া উচিত ছিলো। কিন্তু তুমি তা পাওনি। এই কথায় পুষ্পা রানী বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। সে গোডাউন হাট সংলগ্ন ডালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী। বিষপান করায় তার আশংকাজনক অবস্থা হওয়ায় ডিমলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ রিেেপার্ট লেখা পর্যন্ত ছাত্রী পুষ্পা রানীর জ্ঞান ফেরেনি। ডিমলা হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ রাসেদুজ্জামান রাসেদ জানান, ৭২ ঘন্টা না যাওয়া পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে তাকে ভালো ভাবে ওয়াশ করে বিষ বের করে দেওয়া হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই