মেইন ম্যেনু

জেনে নিন, নারকেল তেলের দারুণ ১০ ব্যবহার

আফরিনা ফেরদৌস : নারকেল অতি সুস্বাদু একটি খাবার। এটি আমাদের শরীরে পানি এবং খাদ্য দুইটির চাহিদাই পূরণ করে।

নারকেল শুকিয়ে আবার তেলও হয়। যা আমাদের চুলের জন্য খুবই উপকারী। এটি আমাদের চুলকে মসৃণ ও সুন্দর করে তোলে। চুল পড়া কমিয়ে দেয়। এছাড়াও কিন্তু নারকেল তেলের আরো অনেক গুণ রয়েছে। আসুন জেনে নিই।

* সাদা দাঁতের জন্য: দাঁত মানুষের বাহ্যিক সৌন্দর্যের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ। তাই দাঁতকে সুন্দর ও সাদা রাখার ব্যাপারটাও গুরুত্বপূর্ণ। দাঁতকে সাদা রাখার জন্য আপনি আঙুলে করে নারকেল তেল নিয়ে সেটি সমস্ত দাঁতে লাগাতে থাকুন। মিনিট পাঁচেক এভাবে নিয়মিত ব্যবহারে দাঁত সাদা হয়ে যাবে।

* ব্রণ দূর করার জন্য: নারকেল তেল আঙুলে নিয়ে ব্রণে লাগাতে থাকুন। এভাবে কিছুক্ষণ ম্যাসাজ করে পরে আরো কিছুক্ষণ রেখে দিন। ভালো ফলাফলের জন্য অন্তত দুই সপ্তাহ একটানা ব্যবহার করুন।

* দাঁতের ব্যথা দূরীকরণ: দাঁতের ব্যথা কমাতে নারকেল তেল বেশ ভূমিকা রাখে। আঙুলে তেল নিয়ে ব্যথা হওয়া দাঁতে মিনিট পাঁচেকের মতো লাগাতে থাকুন। দাঁতের ব্যথা কমে যাবে। এছাড়া সুস্থ দাঁতের জন্য নিয়মিত টুথপেস্ট বা টুথ পাউডারে নারকেল তেল এবং লবঙ্গের তেল মিশিয়ে দাঁত ব্রাশ করতে পারেন।

* পোষা প্রাণীর জন্য: নারকেল তেল কুকুর বা বিড়ালের খাবারের সঙ্গে যোগ করলে এদের ক্ষুধার চাহিদা ঠিক থাকে এবং খাবার বিপাকক্রিয়াতে সাহায্য করে।

* ছত্রাক দূর করতে: অনেক খাবারই কিছু দিন রেখে দিলেই তাতে ছত্রাক ধরে এবং তখন ফেলে দিতে হয়। আর ফেলে দিতে হবে না খাবার। ছত্রাক আক্রান্ত খাবারগুলো থেকে ছত্রাকের অংশটুকু উঠিয়ে ফেলুন তারপর ভালো করে সেখানে নারকেল তেল লাগান। অথবা আগে থেকেই নারকেল তেল দিয়ে মেখে রাখতে পারেন যাতে ছত্রাক না ধরে।

* চেহারা থেকে কাজের ধকলের চিহ্ন দূর করতে: সারাদিন এত কাজের মাঝে থাকা হয়, সেই ধকলের চিহ্ন (স্ট্রেস মার্ক) তো মুখে পড়বেই। হালকা গরম নারকেল তেল নিয়ে স্ট্রেস মার্কের ওপর গোলাকারভাবে লাগাতে থাকুন। এভাবে ১০ মিনিট রাখার পর, তেলগুলো মুছে ফেলুন। একটি কাপড় গরম পানিতে ভিজিয়ে নিন এবং মুখে দিয়ে রাখুন যতক্ষণ অবধি না কাপড়টি ঠান্ডা হয়।

* চুল পড়া কমাতে: পুরো মাথাতে নারকেল তেল লাগান। এতে মাথার রক্ত চলাচল ভালো থাকবে। চুল পড়া কমাতে গোসলের আগে ১ ঘণ্টা চুলে নারকেল তেল দিয়ে একটি কাপড় দিয়ে পেচিয়ে রাখুন। ভালো ফলাফলের জন্য নারকেল তেল রাতে ব্যবহার করে সারা রাত চুলে রেখে দিন। এতে করে চুল পড়া কমে যাবে।

* বলিরেখা কমাতে: মুখের সব জায়গাতেই নারকেল তেল লাগিয়ে আঙুলের সাহায্যে মাসাজ করুন। প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে অন্তত একবার এটি করুন। দেখবেন মুখের বলিরেখা অর্থাৎ বয়সের ছাপ কমে যাবে।

* রোগ প্রতিরোধে: রোগ প্রতিরোধে রান্নায় নারকেল তেল উপকারী। যাদের ডায়াবেটিস আছে এবং যারা রক্তে শর্করার উচ্চমাত্রা সংক্রান্ত জটিলতায় ভুগছেন, তাদের জন্য প্রাত্যহিক খাবারদাবারে পরিমিত মাত্রার নারকেল তেল খুবই উপকারী। রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে নারকেল তেল। এছাড়া পেটের পীড়া এবং পাকস্থলীর গোলযোগ সারাতেও কাজে লাগে এই তেল। নারকেল তেল পরিপাকে এবং হজম শক্তি বাড়াতে সহায়ক। পরিপাকতন্ত্রের গোলযোগে ভুগে থাকলে এবং হজম সংক্রান্ত সমস্যা থাকলে নিয়মিত রান্নাবান্নায় নারকেল তেল ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

* ডায়াপার রাস থেকে মুক্তি পেতে: আপনার শিশুকে ডায়াপার রাস থেকে মুক্তির জন্য একটু নারকেল তেল নিয়ে শিশুর শরীরের যে অংশ পর্যন্ত ডায়াপার আটকে থাকে সেখানে লাগিয়ে দিন। এতে করে ডায়াপার রাস কমে যাবে। এছাড়া মেয়েদের পিরিয়ডের সময় রাস উঠে। সেক্ষেত্রেও আপনি নারকেল তেল ব্যবহার করতে পারেন। আক্রান্ত স্থানে নারকেল তেল লাগিয়ে তারপর কাপড় পরিধান করবেন।






মন্তব্য চালু নেই