মেইন ম্যেনু

জেনে নিন, প্রেমে পড়লে কোন রাশির লোকের ব্যবহার কেমন হয়?

‘প্রেমে পড়তে লাগে না বয়স… মনে থাকে না উনিশ-বিশ।’ প্রেমের নির্দিষ্ট কোনো বয়সের প্রয়োজন হয় না। ৮ থেকে ৮০ যে কোনো বয়সের মানুষই প্রেমে পড়তে পারেন। কিন্তু কোনো মানুষ যখন প্রেমে পড়েন, তখন কেমন হয় তার ব্যবহার? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রেমে পড়লে এক-এক রাশির লোকের ব্যবহার এক-একরকমের হয়ে যায়। যেমন,

মেষ- এরা জেগে-ঘুমিয়ে, সর্বক্ষণ স্বপ্ন দেখতে থাকেন। হঠাৎ করে সবকিছুতে ভীষণ লজ্জা পান। যা এদের স্বভাবের সঙ্গে যায় না। এককদমে এগোতে চাইলে এরা ভয়ও পান!

বৃষ- এরা অপর মানুষটি সম্পর্ক জানতে শুরু করে দেন।

মিথুন- এরা আবার চুপচাপ হয়ে যান। নীরবে প্রেম জাহির করতেই এরা বেশি পছন্দ করেন। মুখে বলার থেকে চোখে

ভাষায় এরা কথা বলতে ভালোবাসেন। এদের মনের কথা বোঝা বড় দায়!

কর্কট- লজ্জা পাওয়ার কোনো ঘটনা এদের ইতিহাসে নেই। এরা যা অনুভব করেন, সোজাসাপ্টা মুখের উপর বলে দেন। তবে এরা অনুভূতিপ্রবণ মারাত্মক।

সিংহ- এদের মন সহজে দুর্বল হয় না। তবে কাউকে ভালো লাগলে তাকে সেকথা বলতেও পিছপা হন না। তবে এরা প্যাম্পার হতেও পছন্দ করেন।

কন্যা- আগে যাচাই, তারপর মন দেয়া নেয়া। এমনটাই করে থাকে ভার্গোরা। এদের প্রেমে জাহির কম। এদের ব্যবহার থেকে কথাবার্তা, কোথাও সেরকম কোনো পরিবর্তন চোখে পড়ে না। এমন ভাব করেন, যেন কিছুই হয়নি কিছুই চলছে না।

তুলা- এরা প্রথম থেকেই সম্পর্কে অন্তরঙ্গতা পছন্দ করেন।

বৃশ্চিক- প্রচণ্ড প্রচণ্ড লাজুক গোত্রের মানুষ এরা। এদের বুক ফোটে তো মুখে ফোটে না কিছুতেই। এদেরকে বুঝতে অসুবিধা হয়। একটু জটিল চরিত্রের লােক এরা।

ধনু- এরা একটু ভিন্ন। হয় গোটা বিশ্বকে চেঁচিয়ে জানিয়ে দেবেন, নয়তো এমনভাব করবেন যেন কিছুই হয়নি।

মকর- সময় নষ্ট করা এদের না পসন্দ। তাই সবদিক খতিয়ে দেখে তারপর এরা এগোন। মনের কথা লুকিয়ে রাখতে এরা ওস্তাদ।

কুম্ভ- পছন্দের ব্যক্তির সঙ্গে বার বার কথা বলতে এরা পছন্দ করেন। তবে শুধু দেহ সৌন্দর্যে এরা আকৃষ্ট হন না। মন এদের কাছে গুরুত্ব পায়। মনের মিল হলে তবেই মনের কথা মুখে আসে।

মীন- এরা একদম হটকে। পরিস্থিতি বুঝে বুঝে এরা ব্যবহার করেন, কথা বলেন। এদের পছন্দ ‘কোয়ালিটি’।-জিনিউজ






মন্তব্য চালু নেই