মেইন ম্যেনু

জেনে নিন ভুঁড়ি কমানোর কিছু সহজ উপায়

আমাদের ব্যস্ততার কারনে শহুরে জীবনে দীর্ঘ সময় বসে বসে কাজ করার জন্য ও দৈহিক পরিশ্রম কম হয়৷ তাই পেটে মেদ জমে যাওয়া খুবই সাভাবিক। কিন্তু যত সহজে পেটে মেদ জমে, ঝড়ানো কিন্তু ততটাই কঠিন। কিন্তু ছোট্টখাট কিছু কৌশল জানা থাকলে আর রোজকার কিছু সহজ অভ্যাসের মাধ্যমে আপনি নিজেই কমিয়ে ফেলতে পারেন আপনার পেটের এই বাড়তি মেদ ও ভুঁড়ি! জিমে গিয়ে টাকা সময় কোনটাই নষ্ট করার কোন প্রয়োজন নেই। কিন্তু করবোন কীভাবে? জেনে নিন কিছু সহজ উপায়।

রোজ সকালে ইষদ্উষ্ণ গরম জলে লেবুর রস
হ্যাঁ, এটা আমরা অনেকেই জানি৷ কিন্তু কুঁড়েমির জন্য অনেকেই করি না। এক গ্লাস গরম জলে অর্ধেকটা পাতি লেবুর রস মিশিয়ে নিন, এতে একটু লবণ মিশিয়ে নিতে পারেন। সকালে ঘুম থেকে উঠেই আর রাতে ঘুমোতে যাবার আগেও পান করতে পারেন এটি৷ আপনার শরীরের বাড়তি মেদ ও চর্বি ঝড়িয়ে ফেলতে ভীষণভাবে সাহায্য করে৷

রোজ তিন কোয়া রসুন খান
রোজ সকালে ঘুম থেকে উঠেই খালি পেটে ২/৩ কোয়া রসুন চিবিয়ে খেয়ে নিন, এর ঠিক কিছুক্ষন পরই পান করুন একটু লেবুর রস। এটি আপনার পেটের চর্বি কমাতে দ্বিগুণগতিতে কাজ করবে। তাছাড়া দেহের রক্ত চলাচলকেও আরো বেশী করে সাহয্য করবে এটি।

কিছু মসলা খুবই উপকারি
রান্নায় অতিরিক্ত মশলা ব্যবহার করবেন না৷কিন্তু আপনি কি জানেন কিছু মশলা আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করে৷ রান্নার সময় ব্যবহার করুন দারুচিনি, আদা ও গোলমরিচ। এগুলো আপনার রক্তে পেটের মেদ কমাতে সাহায্য করবে।

প্রচুর ফল ও সবজি খোওয়া অভ্যাস করুন
প্রতিদিন সকালের জলখাবারে ও বিকেলে ফল খাওয়ার অভ্যাস করুন। আর দুপুরের খাবারে সবজি রাখুন৷ এবং অবশ্যই স্যালাড খান দুপুরে ও রাতে৷ এতে আপনার শরীরে প্রচুর পরিমাণে এন্টি অক্সিডেন্ট, মিনারেল ও ভিটামিন। আর এগুলো আপনার রক্তের মেটাবলিজম বাড়িয়ে পেটের চর্বি কমিয়ে আনবে সহজেই। আজ থেকেই শুরু করুন এই নিয়মগুলো আর কমিয়ে ফেলুন আপনার ভুঁড়ি,ফিরে পান আপনার মেদহীন সুন্দর স্বাস্থ্য। সুস্থ থাকুন।






মন্তব্য চালু নেই