মেইন ম্যেনু

জেনে নিন, রোজা ভঙ্গ না হওয়ার কারণ সমূহ

ইসলামের পাঁচটি মূল স্তম্ভের মধ্যে রোজা অন্যতম। প্রত্যেক মুসলিমের জন্য রমজানের এক মাস রোজা রাখা ফরজ। এ সময় একজন মুসলমানকে সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত যে কোনো খাদ্যদ্রব্য ও পানীয় গ্রহণ এবং মুখে ওষুধপত্র খাওয়া থেকে সম্পূর্ণ বিরত থাকতে হয়।

এ সময়ের মধ্যেও অনেকে মনের ভুলে অনেক কিছু করে ফেলে যা আপনার কাছে মনে হতে পারে আপনার রোজা ভেঙে গেছে। ফলে তখন আপনি ইচ্ছাকৃত রোজাটা ভেঙে ফেলেন। অথচ আপনি নিজেই জানেন না ওই সময় ইচ্ছাকৃত পানাহার না করলে আপনার রোজাটা কবুল হতো। সুতরাং এসব বিষয়ে রোজাদারদের অবগত হওয়া জরুরি। তাহলে আসুন জেনে নেই রোজা ভঙ্গ না হওয়ার কারণ সমূহ-

০১. অনিচ্ছাকৃত গলার ভেতর ধুলা-বালি, ধোঁয়া অথবা মশা-মাছি প্রবেশ করা।

০২. অনিচ্ছাকৃত কানে পানি প্রবেশ করা।

০৩. অনিচ্ছাকৃত বমি আসা অথবা ইচ্ছাকৃত অল্প পরিমাণ বমি করা (মুখ ভরে নয়)।

০৪. বমি আসার পর নিজে নিজেই ফিরে যাওয়া।

০৫. ভুলক্রমে পানাহার করা।

০৬. সুগন্ধি ব্যবহার করা বা অন্য কিছুর ঘ্রাণ নেয়া।

০৭. নিজ মুখের থুথু, কফ ইত্যাদি গলাধঃকরণ করা।

০৮. শরীর ও মাথায় তেল ব্যবহার করা।

০৯. ঠাণ্ডার জন্য গোসল করা।

১০..মিসওয়াক করা। যদিও মিসওয়াক করার দরুন দাঁত থেকে রক্ত বের হয়। তবে শর্ত হলো গলার ভেতর না পৌঁছানো।

১১. ঘুমের মাঝে স্বপ্নদোষ হলে।

১২. স্ত্রীলোকের দিকে তাকানোর কারণে কোনো কসরত ছাড়া বীর্যপাত হলে।






মন্তব্য চালু নেই