মেইন ম্যেনু

জোয়ারে ভেসে প্রাণ গেলো ৪ শিশুর

কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপজেলার উত্তর ধুরুং ইউনিয়নে জোয়ারের স্রোতে ভেসে গিয়ে ৪ শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ইউনিয়নের মনছুর আলী হাজির পাড়া ভাঙা বেড়িবাঁধ দিয়ে আসা জোয়ারের পানিতে এসব শিশু ভেসে যায়। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে এদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত শিশুরা হল- একই এলাকার আবুল হাশেমের মেয়ে নয়ন মণি (১১), আকতার হোসাইনের ছেলে মিছবাহ উদ্দিন (৭), কামাল হোসাইনের ছেলে সুমি আকতার (৮) ও কাইছার হামিদের মেয়ে পিয়া মণি (৫)। এরা সবাই উপজেলার উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের আফাজ উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

কুতুবদিয়া থানার ওসি আংসা থোয়াই জানান, বেড়িবাঁধের কারণে কুতুবদিয়ার জোয়ারের পানি প্রবেশ অব্যাহত রয়েছে। ওই স্থান দিয়ে প্রবেশ করা জোয়েরের পানিতে ভেঙে গেছে ধুরুং ইউনিয়নের যাতায়াতের রাস্তাটিও। ওই রাস্তা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে এই ৪ শিশু পানিতে ভেসে যায়।

উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আ.স.ম শাহরিয়ার চৌধুরী জানান, চার শিশু বিকেলে ঈদের খুশি ভাগ করার জন্য পার্শ্ববর্তী স্বজনের বাড়িতে যায়। ফেরার সময় জোয়ারের পানিতে শিশুরা ভেসে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে এদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

কুতুবদিয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রবিউল আলম জানান, নিহতের প্রত্যেকের পরিবারকে নগদ ১৫ হাজার টাকা ও ১ বস্তা চাল দেয়া হয়েছে। যেহেতু বেড়িবাঁধের কারণে কুতুবদিয়ার জোয়ারের পানি প্রবেশ অব্যাহত রয়েছে। তাই সরকারিভাবে জনসাধারণকে সজাগ থাকতে বলা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই