মেইন ম্যেনু

জ্বালানি মন্ত্রণালয় ঘেরাওয়ে পুলিশের বাধা

গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সিপিবি ও বাসদ জ্বালানি মন্ত্রণালয় ঘেরাওয়ের চেষ্টা করলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ কমিনিউস্ট পার্টি (সিপিবি) ও বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক পার্টি (বাসদ) তাদের কর্মসূচি শুরু করে। সেখান থেকে বিক্ষোভ মিছিল সহকারে জ্বালানি মন্ত্রণালয় ঘেরাওয়ের উদ্দেশে গেলে পুলিশ ব্যারিকেড দেয়। ব্যারিকেড উপেক্ষা করে তারা মিছিল নিয়ে যেতে গেলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। এরপর সিপিবি ও বাসদের কর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।

সিপিবির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ বলেন, এ ঘটনায় তাদের বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন।

মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালন করতে আজ সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সিপিবি ও বাসদের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত হন। কর্মসূচির শুরুতে প্রেসক্লাবের সামনে সিপিবি-বাসদের শীর্ষ নেতারা বক্তব্য রাখেন। বাসদের সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান জ্বালানি মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেন।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সারা দেশে হরতাল পালন করে এ দুটি দল। হরতাল শেষে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশে ১ থেকে ১৪ মার্চ পর্যন্ত লাগাতার আন্দোলন ও ১৫ মার্চ জ্বালানি মন্ত্রণালয় ঘেরাওয়ের কর্মসূচি ঘোষণা দেন সিপিবির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর আহমেদ। ১ থেকে ১৪ মার্চ পর্যন্ত লাগাতার আন্দোলন ঘোষণা করা হলেও রাজধানীতে মিছিল ছাড়া তেমন কোনো কর্মসূচি পালন করেনি।

এদিকে মঙ্গলবার সিপিবির পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অযৌক্তিকভাবে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বুধবার সিপিবি ও বাসদ জ্বালানি মন্ত্রণালয় ঘেরাও করবে।






মন্তব্য চালু নেই