মেইন ম্যেনু

জ্যান্ত মানুষ চাপা দিয়ে নতুন রাস্তা

জলজ্যান্ত মানুষের উপর গরম পিচের প্রলেপ দিয়ে, রাস্তা হয়ে গেল! অথচ, রাস্তা তৈরির সময় একজনও কারো নজরে পড়ল না! কী করে ঘটে গেল এমন নজিরবিহীন ঘটনা, তা এখনও পরিষ্কার নয়। কিন্তু, বাস্তবেই এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশে।

এখনও পর্যন্ত যা খবর, পা পিছলে একটি বড় গাড্ডায় পড়ে গিয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। রাস্তা তৈরির সময় কেউ তা খেয়ালই করেননি। নুড়ি-খোওয়া দিয়ে সেই গাড্ডা বোজানোর সময়, তাঁকেও জীবন্ত চাপা দেয়া হয়। তার ওপর পিচের প্রলেপ দিয়ে রাস্তাও হয়ে যায়।

পুলিশ জানায়, বছর ৪৫-এর ওই ব্যক্তির নাম লাটোরি লাল। পিচের আড়াল থেকে জামা দেখে গ্রামের মানুষের সন্দেহ হয়। তার পর দেখা যায়, এক ব্যক্তি সেখানে চাপা পড়ে আছে। পুলিশের ধারণা, লাটোরি মদ্যপ অবস্থায় থাকার কারণেই টাল সামলাতে না-পেরে, গাড্ডায় পড়ে যায়। প্রশ্ন উঠেছে, এক ব্যক্তি পড়ে যাওয়ার পর, তার উপর পিচের প্রলেপ দিয়ে, রোলারও চালিয়ে দেওয়া হল, অথচ কারও নজরে পড়ল না কেন? পুলিশের কাছে ব্যাপারটা অস্বাভাবিকই। সবরকম সম্ভাবনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পরে পুলিশের উপস্থিতিতে রাস্তা খুঁড়ে দেহটি বার করা হয়। এলাকার লোকজন নির্মাণ শ্রমিকদের ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন।

পুলিশ জানতে পারে, লাটোরি লাল এবং তার স্ত্রী একসঙ্গে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন। দুজনের মনোমালিন্য হওয়ায়, স্ত্রীকে ফেলেই হাঁটা দেন লাটোরি। ঘণ্টা খানেক পরে স্ত্রী বাড়িতে ফিরে দেখেন, দরজায় তালা ঝুলছে। লাটোরি তখনো ফেরেননি। এরপর টর্চ নিয়ে প্রতিবেশীদের সঙ্গে স্বামীকে খুঁজতে বেরোন। তখনও রাস্তায় পিচ-চাপা অবস্থায় দেখতে পান স্বামীর শার্ট।

পুলিশ রোলার চালক ও এক নির্মাণ শ্রমিককে গ্রেফতার করেছে। মৃতের স্ত্রীকে ক্ষতিপূরণের আশ্বাস দিয়েছে প্রশাসন।






মন্তব্য চালু নেই