মেইন ম্যেনু

জয়কে নিয়ে মন্তব্য, খালেদার বিরুদ্ধে মামলা

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে কুমিল্লার আদালতে মামলা করেছেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কমিটির সভাপতি।

মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে কুমিল্লার ৮ নম্বর আমলি আদালতের মুখ্য বিচারিক হাকিম ফাহাদ বিন আমীন চৌধুরীর আদালতে মামলা করেন ‘আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান’ মুরাদনগর উপজেলা কমিটির সভাপতি শরিফুল আলম চৌধুরী।

বিকেলে মামলাটি আমলে নিয়ে কুমিল্লা জেলা তথ্য কর্মকর্তাকে আগামী ২ জুন ২০১৬ তারিখের মধ্যে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, গত ১ মে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের এক সমাবেশে বিএিনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া সজীব ওয়াজেদ জয়ের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংক একাউন্টে আড়াই হাজার কোটি টাকা আছে বলে বক্তব্য দেন।

তার ওই বক্তব্য ও বিভিন্ন মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশের কারণে শেখ সজীব ওয়াজেদ জয়, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও বাদীর নিজের মানহানি হওয়ায় এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবিসহ বেগম খালেদা জিয়ার শাস্তি চেয়ে এ মামলা করেন।

এ ব্যাপারে জানতে মামলার বাদী শরীফুল আলম চৌধুরী মোবাইল ফোনে জানান, প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় সম্পর্কে খালেদা জিয়ার এমন বক্তব্য সামাজিক গণমাধ্যমগুলোতে প্রচার হলে লোকজন তাকে (শরীফকে) এই বলে কটাক্ষ করে কথা বলতে থাকে যে, তোমার দলীয় প্রধানের ছেলের এই কী অবস্থা? এতে শরীফের মানের হানি হওয়ায় তিনি মামলার সিদ্ধান্ত নেন। উল্লেখ্য, বাদী শরীফের বাবা বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার ১৯নং সাক্ষী।

বাদীপক্ষের আইনজীবী মুরাদনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক এসটি আহম্মেদ ফয়সাল বলেন, ‘আদালত শুনানি শেষে মামলাটি তদন্ত করার জন্য কুমিল্লা জেলা তথ্য কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।’

কুমিল্লা জেলা তথ্য কর্মকর্তা মো. আহসানুল কবির বলেন, ‘আদালতের নির্দেশনা আমরা এখনো পাইনি। নির্দেশনা পাওয়ার পর তদন্ত করে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

এ ব্যাপারে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির কুমিল্লা বিভাগীয় শাখার সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মোস্তাক মিয়া মোবাইল ফোনে বলেন, ‘এটি একটি হয়রানিমূলক মামলা। সারাদেশে বিএনপিকে দমন নিপীড়নের জন্যে আওয়ামী লীগ এ ধরনের মামলা করছে। আমরা এর নিন্দা জানাই।’






মন্তব্য চালু নেই