মেইন ম্যেনু

জয়পুরহাটে হত্যা মামলায় ৭ জনের ফাঁসি

জয়পুরহাটে আবদুল মতিন (৩০) হত্যা মামলায় সাতজনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া ওই মামলায় আরো একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়।

বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে জেলা ও দায়রা জজ মো. আবদুর রহিম এ দণ্ডাদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সদর উপজেলার ধারকী গ্রামের ওয়াজেদ আলী তোরাফ (৪৫), চৈতুন মোল্লা (৪৩), ছাফাদুল (৩৮), মছিরউদ্দিন (৪৮), আনু (২০), আবু হাসান দিলীপ (২৫) ও মন্টু মিয়া (৩০)। এছাড়া যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি একই গ্রামের মাহবুব আলম বাবু (২৫)।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০০৬ সালের ২৭ অক্টোবর সকাল ৭টার দিকে ধারকী গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মতিনকে পূর্বশত্রুতার জের ধরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার পর ওইদিন রাতে নিহতের ভাই সদর থানায় ৯ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরে ২০০৭ সালের ৩০ মার্চ তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলাম রব্বানী আদালতে মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত সাতজনের মৃত্যুদণ্ড এবং একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

জয়পুরহাট জেলা জজ আদালতের পিপি অ্যাড. নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই