মেইন ম্যেনু

ঝিনাইগাতীতে সন্ত্রাসী কায়দায় ভূমিহীন পরিবারের বাড়ি বে-দখল

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার গান্ধিগাও গ্রামের নেওয়াজ উদ্দিন নামের এক ভূমিহীন পরিবারের বসত-বাড়ি সন্ত্রাসী কায়দায় বে-দখল করে নিয়েছে জবর দখলকারীরা। বর্তমানে নেওয়াজ উদ্দিনে পরিবারের সদস্যরা খোলা আকাশের নিচে মানবেতর ভাবে জীবন-যাপন করছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নেওয়াজ উদ্দিন গান্ধিগাও মৌজার বন-বিভাগের জমির উপর বসত-বাড়ি নির্মাণ করে গত ২যুগ ধরে বসবাস করে আসছে। এ জমির প্রতি লোভজাগে প্রতিবেশি প্রভাবশালী সোরহাব আলীর। সোরহাব আলী ওই জমি থেকে নেওয়াজ উদ্দিনকে উচ্ছেদ করার উদ্দেশ্যে ভূয়া জাল দলিল তৈরীসহ নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।

ইতিমধ্যেই নেওয়াজ উদ্দিন ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে কয়েকটি মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করে আসছে সোরহাব আলী। গত ১৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সোরহাব আলীর দায়ের করা একটি মামলার হাজিরা দিতে শেরপুর আদালতে যায় নেওয়াজ উদ্দিনের পরিবারের সদস্যরা।

এ সময় খালি বাড়ি পেয়ে সোরহাব ও তার পরিবারের সদস্যরা নেওয়াজ উদ্দিনের ২টি বসত ঘরের তালা ভেঙ্গে বাড়ির সমস্ত মালামালসহ বাড়িটি বে-দখল করে নেয়। ফলে নেওয়াজ উদ্দিনের পরিবারের সদস্যরা এখন খোলা আকাশের নিচে বসবাস করে আসছে। অভিযোগ রয়েছে সোরহাব আলীর লোকজন নেওয়াজ উদ্দিনের পরিবারের সদস্যদের এলাকা ছাড়া করতে নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। সোরহাব আলীর লোকদের ভয়ে নেওয়াজ উদ্দিনের পরিবারের লোকজন এখন নিরাপত্তা হীনতায় রয়েছে।

এ ব্যাপারে নেওয়াজ উদ্দিনের ছেলে নিজাম উদ্দিন বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এ ব্যাপারে সোরহাব আলীর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, নেওয়াজ উদ্দিন জায়গাসহ বাড়িটি আমার কাছে বিক্রি করলেও দখল বুঝিয়ে দেয়নি। তাই বাড়িটি দখল করে নিয়েছি।

অভিযোগ পেয়ে থানার এএসআই হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বাড়ী ঘর বে-দখলের সত্যতা পান। ওসি মিজানুর রহমান বলেন, ঘটনাটি তদন্তাধীন রয়েছে। আসামীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।






মন্তব্য চালু নেই