মেইন ম্যেনু

ঝিনাইদহের বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ হাসানুজ্জামানের পিতার ইন্তেকাল বিভিন্ন মহলের শোক

ঝিনাইদহের বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ হাসানুজ্জ্মানের পিতা গোলাম রহমান লস্কর ওরফে আব্দুর রহিম স্বজনদের কাদিয়ে চির বিদায় নিয়েছেন। বুধবার দুপুর ১২ টা ৪০ মিনিটে তিনি ঝিনাইদহ শহরস্থ সেজ ছেলে ডাঃ হাসানুজ্জামানের বাসভবনে ৯৫ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, চারপুত্র এবং তিন মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। সাবেক রেলওয়ে কর্মকর্তা মরহুম গোলাম রহমান তার সাড়ে তিন দশকের কর্ম জীবনে সময়ানুবর্তীতা এবং সততার এক বিরল দৃষ্টান্ত উপস্থাপন করেন। মরহুমের বড় ছেলে ডাঃ এমএ রব বিশিষ্ট চক্ষু বিশেষজ্ঞ, মেজে ছেলে বখতিয়ার জামাল ১৯৭১ সালে মহান স্বাধীনতা সংগ্র্রামকালেহানাদার বাহিণরি হাতে শহীদ হন, সেজে ছেলে ডাঃ হাসানুজ্জামান পবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক নোয়া ছেলে শহীদুজ্জামান হাউজ বিল্ডিং ফাইনান্স করপোরেশনের ডিজিএম এবং ছোট ছেলে আকতরুজ্জামান টিপু বিশিষ্ট ব্যবসায়ী।

এছাড়া মরহুমের তিন মেয়ে এবং জামাই সকলেই স্বস্ব অঙ্গনে সুনামের সাথে প্রতিষ্ঠিত। মরহুম গোলাম রহমানের প্রথম নামাজে জানাজা আজ বৃহস্পতিবার হরিণাকুন্ডু পৌর সভাস্থ চিথলিয়াপাড়া ঈদগাহ ময়দানে এবং ২য় নামাজে জানাজা বাদ জহর ঝিনাইদহ আলিয়া মাদরাসা মাঠে সম্পন্ন হওয়ার পর ঝিনাইদহ পৌর গোরস্থান ময়দানে দাফন করা হবে।

এদিকে ডাক্তার হাসানুজ্জামানের পিতার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে হরিণাকুন্ডু ও ঝিনাইদহে শোকের ছায়া নেমে আসে। মরহুমের মৃত দেহ দেখতে ঝিনাইদহ শহরের উপশহর পাড়াস্থ বাসায় স্বজনরা ভীড় জমাতে থাকেন। মরহুম গোলাম রহমান লস্কর ওরফে আব্দুর রহিমের মৃত্যুতে ঝিনাইদহ ও হরিণাকুন্ডুর বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষ শোক প্রকাশ করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই