মেইন ম্যেনু

ঝিনাইদহে সেবায়েত ও চিকিৎসক হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ২

এসএম হাবিব, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: ঝিনাইদহে সেবায়েত ও এক হোমিও চিকিৎসক হত্যার দায়ে শাহিনুর রহমান ও সুবজ খান নামে দুই শিবির নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।রোববার ঝিনাইদহ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজ বাহার আলী শেখ।
শিবির নেতা শাহিন শৈলকুপা উপজেলার ফুলহরি গ্রামের আমিনুল ইসলামের ছেলে। তিনি সেবায়েত শ্যামানন্দ দাস হত্যার সাথে জড়িত বলে পুলিশের দাবী। তাকে শেখপাড়া বাজার থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

অন্যদিকে শিবির নেতা সবুজ খান কালীগঞ্জ উপজেলার বাকুলিয়া হরিপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে। তাকে কালীগঞ্জের বারবাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। শিবির নেতা সবুজ খান কালীগঞ্জের শিয়া মতবাদের চিকিৎসক আব্দুর রাজ্জাক হত্যার সাথে জড়িত বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় গত ১ জুলাই ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কাস্টসাগরা গ্রামে সেবায়েত শ্যামানন্দ দাসকে ফুল তোলার সময় কুপিয়ে হত্যা করা হয়। অন্যদিকে গত ১৪ মার্চ রাত ৯টার দিকে কালীগঞ্জ শহরের গান্না সড়কে চিকিৎসক আব্দুর রাজ্জাককে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

চাঞ্চল্যকর এ দুই হত্যার সাথে শিবির নেতা শাহিন ও সবুজ খান জড়িত বলে পুলিশ দাবী করেছে। এদিকে গ্রেফতারকৃতদের পরিবারের পক্ষ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল, শাহিন ও সবুজকে সাদা পোশাকের লোকজন ধরে নিয়ে গেছে। শিবিরের কেন্দ্রীয় নেতাদের পক্ষ থেকেও শনিবার সন্ধায় গনমাধ্যমে বিবৃতি পাঠানো হয়। পুলিশ সুপার বলেন, হোমিও চিকিৎসক ও গোসাঁই হত্যার ঘটনায় সবুজ খান (২২) ও শাহিন আলম (২৪) নামে দুই শিবির নেতা ঝিনাইদহ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। তাদের কাছ থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে। সবুজ খান স্বিকার করেছে ছাত্র শিবিরের কেন্দ্রীয় নির্দেশে হোমিও ডাক্তার আব্দুর রাজ্জাক কে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে । সবুজ খানের বাড়ি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হরিপুর গ্রামে । সে শিবিরের রাজনীতি করার স্বার্থে বাড়ি ছেড়ে কালীগঞ্জ বাকুলিয়া গ্রামে থাকতো ।

রবিবার সন্ধা ৭ টায় ঝিনাইদহের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক বেগম ফাহমিদা জাহাঙ্গীর ও কালীগঞ্জ আমলি আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আলমগীর কবিরের আদালতে তারা হত্যাকা-ের ঘটনা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন।

পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজবাহার আলী শেখ, এএসপি গোপিনাথ কানজি লাল, ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি হরেন্দ্রনাথ সরকার ও কালীগঞ্জ থানার ওসি আমিনুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই