মেইন ম্যেনু

‘ঝুঁকিপূর্ণ শ্রমে শিশু নিয়োগ দিলে ব্যবস্থা’

শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক বলেছেন, ঝুকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসনে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে যাচ্ছে সরকার।

তিনি বলেন, ‘যেসব কারখানা মালিক শিশুদের ঝুঁকিপূর্ণ শ্রমে নিয়োগ দেবেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ তিনি এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকদের সহযোগিতা কামনা করেন।

বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের প্রথম পর্বে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘১৮ বছরের কম বয়সীকে শিশু হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। শ্রম আইন অনুযায়ী ১৪ থেকে ১৮ বছর পর্যন্ত শিশু-কিশোরদের ঝুঁকিপূর্ণ নয়- এমন কাজে নিয়োগ দেওয়া যাবে।’

শ্রম প্রতিমন্ত্রী কলকারখানায় উৎপাদন বৃদ্ধি, বিশেষ করে তৈরি পোশাক শিল্পের নিরাপদ কর্মপরিবেশের উন্নয়নের লক্ষ্যে মালিক-শ্রমিকদের মাঝে সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করার জন্য জেলা প্রশাসকদের প্রতি আহ্বান জানান।

মুজিবুল হক বলেন, ‘শ্রমিকদের সহজে বিচার প্রাপ্তির সুবিধার্থে সিলেট, বরিশাল এবং রংপুরে আরো তিনতি শ্রম আদালত প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’

উল্লেখ্য, বর্তমানে ঢাকাসহ সারা দেশে ৭টি শ্রম আদালত এবং একটি শ্রম আপীল ট্রাইব্যুনাল-এর কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘প্রাতিষ্ঠানিক-অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে নিয়োজিত শ্রমিকদের কল্যাণে শ্রমিক কল্যাণ তহবিল গঠন করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় নিহত, স্থায়ী পঙ্গুত্ব বরনকারী, দূরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত শ্রমিক, শ্রমিকদের সন্তান যারা এসএসসি, এইচএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ পেয়েছে এবং সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিক্যাল কিংবা ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত তাদের এ তহবিল থেকে অর্থ সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। এখন পর্যন্ত দেশীয় ও বহুজাতিক মিলে ৭০টি কোম্পানির লভ্যাংশের একটি অংশ প্রায় ১৬০ কোটি জমা হয়েছে।’ এবছরই এ তহবিলে জমার পরিমাণ ২শ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে প্রতিমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, ‘শতভাগ রপ্তানীমুখি তৈরি পোশাক শিল্পে কর্মরত শ্রমিকদের কল্যাণে আরো একটি কেন্দ্রীয় কল্যাণ তহবিল গঠন করা হয়েছে। মোট রপ্তানি মূল্যের ০.০৩ ভাগ অর্থ গত ০১ জুলাই থেকে সরাসরি ব্যাংক একাউন্টে জমা শুরু হয়েছে।’

সম্মেলনে মন্ত্রীপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অধিবেশনে অন্যান্যের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থাণ মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব বেগম শামছুন নাহার, তিনটি মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং সকল বিভাগীয় কমিশনাররা অংশ নেন। অধিবেশনে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।






মন্তব্য চালু নেই