মেইন ম্যেনু

টানা পঞ্চম সিরিজ জয়ের হাতছানি

ওয়ানডেতে স্বপ্নের মতো কাটানো একটি বছর অসাধারণ আরেকটি অর্জনে শেষ করার হাতছানি বাংলাদেশের সামনে। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে হারাতে পারলেই ঘরের মাঠে টানা পাঁচটি ওয়ানডে সিরিজ জয়ের কীর্তি গড়বে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল।

মজার ব্যাপার হলো, গত বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে এই জিম্বাবুয়েকে দিয়েই বাংলাদেশের সাফল্যের গল্পটা শুরু হয়েছিল। অথচ ২০১৪ সালের শুরু থেকেই ব্যর্থতার চোরাবালিতে ঘুরপাক খাচ্ছিল বাংলাদেশ। টানা ১২টি ওয়ানডে হেরে জয়ের স্বাদটাই যেন ভুলতে বসেছিল টাইগাররা!

অবশেষে বছরের শেষভাগে এসে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ৫-০ ব্যবধানে জিতে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। তারপর থেকেই পেছনে তাকাতে হয়নি তাদের। একের পর এক বাংলাদেশের সাফল্যের ফোয়ারা ছুটছে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর এ বছরের শুরুতে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপের পর ক্রিকেটের তিন পরাশক্তি দল পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়। সবশেষে আবারও সামনে জিম্বাবুয়ে। এবার প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশকে হারিয়ে একটা হুঙ্কারই দিয়েছিল জিম্বাবুইয়ানরা। তবে মূল লড়াইয়ে বাংলাদেশের কাছে পাত্তাই পায়নি এল্টন চিগুম্বুরার দল। প্রথম ওয়ানডেতে ১৪৫ রানের বিশাল ব্যবধানে হারে তারা।

আর প্রথম ম্যাচের জয়ে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস স্বাভাবিকভাবেই আরো বেড়ে গেছে। এমনটা জানলেন তামিম ইকবালও। ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে তামিম বলেন, ‘যে কোনো সিরিজের প্রথম ম্যাচটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। প্রথম ম্যাচে খেলোয়াড়রা একটু দ্বিধায় থাকে, একটু স্নায়ুচাপে থাকে। প্রথম ম্যাচের ফল যাদের পক্ষে যায়, তাদের আত্মবিশ্বাস স্বাভাবিকভাবেই বেড়ে যায়। সেই আত্মবিশ্বাস আমাদের আছে।’

প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের দেওয়া ২৭৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে মাত্র ১২৮ রানের অলআউট হয়ে যায় জিম্বাবুয়ে। তবে সফরকারীদের মোটেই হালকাভাবে নিচ্ছেন না তামিম। বাকি দুই ম্যাচ জিততে সমান পরিশ্রমই করতে হবে বলে মনে করেন দেশসেরা এই ওপেনার, ‘আমরা জানি পরের দুটি ম্যাচ জিততে হলে সমানভাবে পরিশ্রম করতে হবে, শুরুটা ভালো করতে হবে। ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই নিজেদের সেরাটা দিতে হবে। আমরা এভাবেই এগোনোর চেষ্টা করব।’

অন্যদিকে, প্রথম ম্যাচে বড় ব্যবধানে হারলেও যেকোনো মূল্যে সিরিজে সমতায় ফিরতে মরিয়া জিম্বাবুয়ে। ম্যাচের আগে দিন দলটির মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান ম্যালকম ওয়ালার বলেন, ‘আগামীকালের ম্যাচে আমাদের জিততেই হবে। এই ম্যাচে ভালো স্কোর গড়ে সিরিজে সমতা আনতে হবে। সব মিলিয়ে এই ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াতে হবে আমাদের। বাজে অবস্থা থেকে বেরিয়ে এসে সিরিজে ১-১ ব্যবধানে সমতা আনাই আমাদের লক্ষ্য।’

সোমবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর ১টায়।

এই ম্যাচের আগে জিম্বাবুয়ে অবশ্য কিছুটা স্বস্তি পেতে পারে। কারণ প্রথম ম্যাচে ৫ উইকেট নেওয়া সাকিব আল হাসান বাকি সিরিজে আর খেলছেন না। সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে রোববার রাতেই যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার। তার বদলে দলে এসেছেন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়।

বিজয় দলে ঢুকলেও সেরা একাদশে হয়ত সুযোগ পাবেন না। তামিমের সঙ্গে ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে ইমরুল কায়েসকে। লিটন দাস প্রথম ম্যাচে ওপেনিংয়ে নেমে ‘ডাক’ মারলেও নিজেকে প্রমাণের আরেকটা সুযোগ হয়ত পাবেন। সেক্ষেত্রে তার পুরনো জায়গা তিন নম্বরে নামবেন। এ ছাড়া আর পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা খুব একটা নেই।

একাদশ যেমনই হোক, এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ জয়ই বাংলাদেশের মূল লক্ষ্য। আর এই সিরিজটি জিতলে ঘরের মাঠে টানা পাঁচটি ওয়ানডে সিরিজ জয়ের কীর্তি গড়ার পাশাপাশি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নবম দ্বিপক্ষীয় সিরিজও জিতবে বাংলাদেশ।






মন্তব্য চালু নেই