মেইন ম্যেনু

টিউশন ফির বিপরীতে ভ্যাট আদায় অবৈধ ঘোষণার রায় স্থগিত

ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের টিউশন ফির ওপর আরোপ করা সাড়ে সাত শতাংশ ভ্যাট অবৈধ বলে দেওয়া হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। এ বিষয়ে আগামী ২৯ জানুয়ারি পরবর্তী শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

আজ মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এম আমিন উদ্দিন। ২০১২ সালে সরকার ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থীদের টিউশনের ওপর ৪ দশমিক ৫ শতাংশ করারোপ করে। ২০১৫ সালে তা বাড়িয়ে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ করা হয়। এ সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে সানবিম স্কুলের শিক্ষার্থী ফাইজুল ইসলাম ও সানিডেল স্কুলের শিক্ষার্থী সেলিম আজমের অভিভাবকরা ওই বছরের ১৬ সেপ্টেম্বর রিট করেন।
রিটের শুনানি নিয়ে ১৭ সেপ্টেম্বর হাইকোর্ট ভ্যাট আরোপ স্থগিত করে রুল জারি করেন। পরে অবশ্য হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ ১৪ অক্টোবর আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত স্থগিত করে দেন। এরপর এ বিষয়ে জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে সোমবার ১২ ডিসেম্বর বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও মো. মজিবুর রহমান মিয়ার হাইকোর্ট বেঞ্চ ওই রায় দেন। পরে রায়ের বিরুদ্ধে আবেদন আপিল বিভাগে আবেদন জানায় রাষ্ট্রপক্ষ। হাইকোর্টের রায়ে স্থগিতাদেশ চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ আবেদন করলে চেম্বার বিচারপতি বিষয়টি ২ জানুয়ারি (আজ) আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেন। আজ শুনানি নিয়ে আদেশ দেন আপিল বিভাগ।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের শুনানিতে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এস এম মনিরুজ্জামান। রিট আবেদনকারীর পক্ষে শুনানিতে ছিলেন এ এম আমিন উদ্দিন ও এম মনজুর আলম। আইনজীবীরা জানান, গত বছরের ৫ জুন এনবিআর একটি পরিপত্র জারি করে। এর একটি অংশে ইংরেজি মাধ্যমের স্কুলশিক্ষার্থীদের টিউশন ফির ওপর সাড়ে ৭ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করা হয়। এর বৈধতা নিয়ে রিট হয়। আদালত রুল দেন। এর ধারাবাহিকতায় হাইকোর্ট ওই ভ্যাট আরোপ অবৈধ ঘোষণা করে রায় দেন।






মন্তব্য চালু নেই