মেইন ম্যেনু

টিসিবির পণ্য পেতে সরকারি চাকরিজীবীরাও লাইনে

‘লাইনে দাঁড়ান ভাই। আগে আসলে আগে পাবেন। ট্রাক ভর্তি পণ্য আপনাদের জন্যই। বিবাদে জড়াবেন না। পণ্য শেষ হলে কাল আবার পাবেন।’ এভাবেই হাঁকডাকে ব্যস্ত টিসিবির তেজগাঁও এলাকার ডিলারের পণ্য বিক্রেতা আকবর।

মঙ্গলবার রাজধানীর তেজগাঁওস্থ কলেজগেইট এর সামনে ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এর ভ্রাম্যমাণ ট্রাকের সামনে এমন দৃশ্য চোখে পড়ে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, লাইনে দাঁড়িয়ে পণ্য কিনছেন, স্থানীয় বাসিন্দারা, ডাক্তার, কলেজ শিক্ষক, বেসরকারি চাকরিজীবী। তবে নারীদের সংখ্যাই বেশি।

আসন্ন পবিত্র রজমান উপলক্ষে রাজধানীসহ সারাদেশের কমপক্ষে ১৭৯টি স্থানে ভ্রাম্যমাণ ট্রাকের মাধ্যমে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রি শুরু করেছে ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)।

গত ২৯ মে থেকে শুরু হওয়া ঢাকার ৩২টি, চট্টগামের ১০টি, অন্যান্য বিভাগীয় শহরে ৫টি, জেলা শহরে ২টি করে স্থানে এ বিক্রয় কার্যক্রম চলছে।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর তেজগাঁও এলাকার তিনটি স্থানে গিয়ে দেখা যায়, দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে ক্রেতারা টিসিবি’র পণ্য কিনছেন। ট্রাকের সামনে পণ্যের নাম, পণ্য কেনার পরিমাণ ও কেজি প্রতি দাম নির্ধারণের তালিকাও লাগানো হয়েছে।

তেজগাঁওস্থ কলেজগেইট এর সামনে টিসিবির পণ্য কিনতে এসেছেন ডেল্টা হাসপাতালের ডাক্তার আব্দুল সবুর। তিনি বলছিলেন, প্রথম দিকের টিসিবির পণ্য ভালো মানের পাওয়া যায়। তাছাড়া রমজানের কেনাকাটা আগেই সেরে রাখা ভাল।

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ডাক্তার আব্দুল হালিমও এসেছেন টিসিবির পণ্য কিনতে। তবে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে নারাজ তিনি । কিন্তু পণ্য কিনতে ঠিকই দাঁড়িয়েছেন লাইনে।

৫ লিটার সয়াবিন তেল, ২ কেজি খেজুর, ডাল ২ কেজি ও ১ কেজি চিনি কিনে ফেরার পথে তিনি বলেন, বেতন সরকার বাড়িয়েছে কিন্তু যতোটা বাড়িয়েছে তার চেয়ে তিনগুণ বের করে নিচ্ছে নানাভাবে। ট্যাক্স বাড়ছে, বিদ্যুৎ খরচ বাড়ছে। গ্যাস বিল, পানি বিল, বাড়ি ভাড়া সবই তো বাড়ছে। একটু সস্তায় ভালো পণ্য খেতে পারলে লাইনে দাঁড়িয়ে কিনতে মন্দ কি!

রিকশা শ্রমিক আলী হোসেন বলছিলেন, সকালেই হুনছি (শুনেছি) এইহানে চিনি ডাল, খেজুর পামু, তাই সকাল থাইক্যা পুরাদম খাটলাম, এহন আইছি সরকারি জিনিস কিনতে। কম দামে বেশি পণ্য পামু তাই আইছি।

টিসিবির বিক্রেতা আকবর জানান, চিনি(দেশি) প্রতি কেজি ৪৮ টাকা, মসুর ডাল (কানাডা) ৮৯.৯৫ টাকা, সয়াবিন তেল বোতল (৫ লিটার) প্রতি লিটার ৮০ টাকা, ছোলা ৭০ টাকা ও খেজুর ৯০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

তেজগাঁওয়ের ডিলার রফিকুল ইসলাম বলেন, তেজগাঁও এলাকার মোহাম্মদপুর টাউন হল, ঝিগাতলা, শ্যামলী, কল্যাণপুর, কলেজ গেইট, খামারবাড়ী এলাকা, নিউমার্কেট, নীলক্ষেত বাজার এলাকায় ভ্রাম্যমাণ ট্রাকে করে পণ্য বিক্রি চলছে। কোথাও বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে না। আবার পণ্যও পর্যাপ্ত পাঠানো হচ্ছে।

খামারবাড়ীর টিসিবির পণ্য বিক্রেতা জহুরুল জানান, সব শ্রেণির মানুষ এখানকার ক্রেতা। তবে খামার বাড়ির কৃষিবীদ ইনস্টিটিউটের অনেক কর্মকর্তাই এখানে পণ্য কিনে গাড়িতে করে চলে যাচ্ছেন।






মন্তব্য চালু নেই