মেইন ম্যেনু

টি-টোয়েন্টিতে লিটনের অভিষেক

ভারতের বিপক্ষে সর্বশেষ সিরিজে টেস্ট ও ওয়ানডেতে অভিষেক হয়েছিল লিটন দাসের। বাকি ছিল কেবল টি-টোয়েন্টিই। এবার সেই ফরম্যাটেও অভিষেক হয়ে গেলে লিটন দাসের। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতেই দলে ডাক পেয়েছেন তিনি।

ভারতের আগে সফরকারী পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলার জন্য গত ২২ এপ্রিল বাংলাদেশ দল ঘোষণা করেছিল। ওই দলেও ক্যাপবিহীন অবস্থায় লিটন দাস-সহ মুস্তাফিজুর রহমানকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছিল।

এরপর ২৪ এপ্রিল বাংলাদেশ টেস্ট দলের নাম ঘোষণা করা হয়। সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ শহীদের সাথে লিটন দাসও ১৪-সদস্যের দলে অন্তর্ভূক্ত হন। কিন্তু দুই টেস্টের সিরিজে খেলার সুযোগ ঘটেনি তার। তবে সর্বশেষ ভারতের বিপক্ষে নিয়মিত উইকেট-কিপার মুশফিকুর রহিমের আঙ্গুলের চোটের কারণে কপাল খুলে যায় ২০ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের।

১০ জুন, ২০১৫ তারিখে বাংলাদেশের ৭৭তম টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক ঘটে লিটনের। সফরকারী ভারত দলের বিপক্ষে অভিষেক টেস্টে ৪৪ রান তোলেন তিনি। খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ টেস্টে তার এ রানটি অভিষেকে বাংলাদেশী উইকেট কিপারদের মধ্যে সর্বোচ্চ। এছাড়াও তিনি তৃতীয় বাংলাদেশী ক্রিকেটার হিসেবে টেস্ট অভিষেকে উইকেটরক্ষকের দায়িত্ব পান।






মন্তব্য চালু নেই