মেইন ম্যেনু

টু্ইটারে অ্যাকাউন্ট খুলেছেন স্নোডেন

সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম টুইটারে অ্যাকাউন্ট খুলে নতুন করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন যুক্তরাষ্টের ন্যাশনাল সিকুরিটি এজেন্সির (এন এস এ) সাবেক কর্মকর্তা এডওয়ার্ড স্নোডেন। টুইটার কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে যে এটিই তার আসল অ্যাকাউন্ট এবং স্নোডেন নিজেই এই অ্যাকাউন্ট এর দায়িত্বে আছেন।

তার প্রথম টুইট হচ্ছে,‘তুমি কি এখন আমাকে শুনতে পাচ্ছ?’ টুইটারের প্রফাইলে নিজের সম্পর্কে তিনি লিখেছেন,‘একসময় সরকারের পক্ষে কাজ করতাম। এখন কাজ করছি জনগণের জন্য ।’ মজার বিষয় হচ্ছে, টুইটারে অ্যাকাউন্ট খোলার সঙ্গে সঙ্গে তার ফলোয়ারের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়ে যায়। এতেই বোঝা যায়, দেশ থেকে পালিয়ে আসার পরও তিনি কতটা জনপ্রিয়।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে পালিয়ে আসার পর বর্তমানে তিনি রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে অবস্থান করছেন।

টুইটারে তিনি তার দ্বিতীয় টুইটটি লিখেছেন মার্কিন জ্যোতিঃপদার্থবিজ্ঞানী নিল ডি গ্রেস টাইসনকে উদ্দেশ্য করে। তিনি মজা করে লিখেছেন,‘এখন আমরা মঙ্গলে পানি খুঁজে পেয়েছি। বন্ধুদের জিজ্ঞেস করে দেখুন, তারা বোধহয় এখন মঙ্গলের সীমান্তে পাসপোর্ট পরীক্ষা করে দেখতে শুরু করেছে।’ সম্প্রতি মার্কিন জ্যেতিবিজ্ঞানী টাইসন মঙ্গলে পানি পাওয়া গেছে বলে জানানোর পর তিনি এই টুইট করেন।

আর একটি টুইটারে স্নোডেন লিখেছেন,‘বীর বা বিশ্বাসঘাতক এগুলোর কিছুই নই-আমি কেবলই একজন সাধারণ নাগরিক যে কিছু বলতে চায়।’

টুইটারে অ্যাকাউন্ট খোলার মাত্র নয় ঘণ্টার মধ্যেই তার ফলোয়ারের সংখ্যা ৭ লাখ ১০ হাজারে গিয়ে ঠেকেছে।বলে বিবিসি জানিয়েছে।

২০১৩ সালে মার্কিন সংস্থা এন এস এ এর বেশ কিছু ব্যাক্তিগত নথিপত্র ফাঁস করে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসেন স্নোডেন। এরপর বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে পলাতক থেকে অবশেষে রাশিয়ায় তিনি স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। এরপর নানা সময়ে ব্যাক্তিগত তথ্যে হস্থক্ষেপের প্রসঙ্গে এন এস এ এর বিরুদ্ধে কথা উঠলে স্নোডেন এর প্রসঙ্গ খুব সহজেই চলে আসতো। বর্তমানে টুইটারে অ্যাকাউন্ট খুলে ফের আলোচনায় ফিরে এসেছেন তিনি। হঠাৎ করে তার এই অ্যাকাউন্ট খোলাকে অনেকে পুতিন এর প্রভাব থেকে স্নোডেনের মুক্ত থাকার ইঙ্গিত হিসেবেই দেখছেন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই