মেইন ম্যেনু

টেকনাফে রোহিঙ্গাদেরকে ভোটার করার অভিযোগে ১তথ্য সংগ্রহকারী প্রত্যাহার

টেকনাফে ভোটার হালনাগাদে রোহিঙ্গাদেরকে ভোটার করার অভিযোগে ১ তথ্য সংগ্রহকার কে প্রত্যাহার করেছে নির্বাচন অফিস। তিনি হচ্ছেন বাহারছড়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের দায়িত্ব প্রাপ্ত তথ্য সংগ্রহকারী মাষ্টার আব্দুল মোতালেব। তার স্থলে ৯ নং ওয়ার্ডের তথ্য সংগ্রহকারী মাষ্টার ইসমাঈলকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

তথ্য সংগ্রহকারী প্রাইমারী শিক্ষক মোতালেব ঘরে বসে প্রতি ফরম ৫শ টাকার বিনিময়ে রোহিঙ্গা নাগরিকদেরকে ভোটার করছে মর্মে ৮ নং ওয়ার্ডের জনগণ নির্বাচন অফিসে অভিযোগ করলে এর প্রেক্ষিতে তাকে প্রত্যাহার করা হয় বলে নির্বাচন অফিস সূত্রে জানায়।

এদিকে প্রত্যাহারকৃত মাষ্টার মোতালেব জানান, আমার ভাবমূর্তি বিনষ্ট করার মানষে প্রতি পক্ষ লোকজন মিথ্যা অপবাদ দিয়ে আমাকে বাদ দিয়েছেন। এলাকার জনগণ জানায়, মাষ্টার মোতালেব লোভের বর্শবর্তী হয়ে স্থানীয় এলাকার জনগণকে বাদ দিয়ে বিভিন্ন স্থান থেকে আসা রোহিঙ্গাদেরকে ভোটার ফরমে অন্তভূক্ত করছিল। ইহা বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়লে লোকজন তার বাড়িতে জড়ো হয় এবং রোহিঙ্গাদেরকে ভোটার করার উপস্থিত লোকজনকে দেখতে পায়।

এ বিষয়ে তার কাছে জানতে চাইলে সে স্থানীয় লোকদেরকে কড়া ভাষায় তার বাড়ি থেকে বের করে দেয়। এ বিষয় উপজেলা নির্বাচন অফিসে মোবাইলে জানানো হলেও কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় স্থানীয় লোকজন গত ২৩ আগষ্ট উপজেলা নিবার্হী অফিসার বরাবরে অভিযোগ দায়ের করলে উপজেলা নিবার্হী অফিসার তদন্ত পূর্বক তাকে প্রত্যাহার করেন বলে স্থানীয় লোকজন জানায়।

এ ব্যাপারে এলাকাবাসী রোহিঙ্গা বান্ধব মাষ্টার মোতালেব টাকার বিনিময়ে যে সমস্ত ভোটার ফরম নষ্ট করেছে উক্ত ফরমের স্থলে নতুন ফরম প্রদান করে স্থানীয়দেরকে ভোটার হালনাগাদে অন্তভূক্তকরণ ও মাষ্টার মোতালেবকে এ জঘন্যতম অপরাধের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।






মন্তব্য চালু নেই