মেইন ম্যেনু

টেলিটক-গ্রামীণফোন-রবিকে জরিমানা

অবৈধ ভিওআইপির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় দেশের শীর্ষ তিন মোবাইল অপারেটর টেলিটক, গ্রামীণফোন ও রবিকে জরিমানা করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। বুধবার বিটিআরসি থেকে তিনটি অপারেটরের প্রধান কার্যালয়ে জরিমানা আদায়ের চিঠি পাঠানো হয়েছে। বিটিআরসি সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এরমধ্যে সর্বোচ্চ ৫০ লাখ ২৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে সরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটককে। গ্রামীণফোন ও রবিকে ৪ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে কমিশন। কমিশনের সর্বশেষ বৈঠকে এ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র নিশ্চিত করেছে।

বিটিআরসি জানিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত অবৈধ ভিওআইপির কাজে ব্যবহার হওয়া ১ হাজার ২৫৬টি টেলিটক সিম এবং একটি করে গ্রামীণফোন ও রবি সিম নির্ধারিত চার ঘণ্টা সময়ের মধ্যে বন্ধ না করায় এ আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে। অবৈধ ভিওআইপি ধরতে ব্যবহৃত সিম বক্স ডিটেকশন (এসবিডি) পদ্ধতিতে এসব সিম শনাক্ত করা হয়।

অবৈধ ভিওআইপির কাজে কোনো সিম ব্যবহার হওয়ার বিষয়টি চিহ্নিত হলে তা সংশ্লিষ্ট মোবাইল ফোন অপারেটরকে চার ঘণ্টার মধ্যে বন্ধ করতে হয়। জানুয়ারি থেকে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত টেলিটকের ১ হাজার ২৫৬টি সিম পাওয়া যায়, যেগুলো চার ঘণ্টার বেশি সময় ধরে অবৈধ ভিওআইপির কাজে ব্যবহৃত হয়। এর মধ্যে কিছু সিম ৮৪ দিন পর্যন্ত চালু রাখার ঘটনাও পাওয়া গেছে। অবৈধ ভিওআইপিতে ব্যবহার হওয়া কোনো সিম চার ঘণ্টার মধ্যে বন্ধ করা না হলে প্রতি সিমের জন্য চার হাজার টাকা করে আর্থিক জরিমানা করার নিয়ম আছে। সে হিসাবে এই জরিমানা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, অবৈধ ভিওআইপিতে কোনো সিম ব্যবহৃত হচ্ছে কি না, সেটি জানতে দুটি পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। একটি হলো সিম বক্স ডিটেকশন (এসবিডি) ও অপরটি হলো সেলফ রেগুলেশন পদ্ধতি (এসআরপি)।

দুটি পদ্ধতিতে কতগুলো সিম অবৈধ ভিওআইপিতে ব্যবহৃত হচ্ছে, প্রতিটি মোবাইল ফোন অপারেটরকে সে বিষয়ে বিটিআরসির কাছে প্রতিবেদন দিতে হয়। পরে সর্বশেষ কমিশন বৈঠকে এ সংক্রান্ত আলোচনা করে জরিমানার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই