মেইন ম্যেনু

ট্রাকের নিচে ঝুলে ৪০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিলো এই যুবক! কারণটা সত্যিই বিস্ময়কর…

বিমানের চাকায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা ঝুলে থেকে ক্যালিফোর্নিয়া থেকে হাওয়াই গিয়েছিল এক মার্কিন কিশোর। এবার এমনই এক ঘটনা সামনে এসেছে। যেখানে এক আফগান কিশোর লরির নিচে ঝুলে পাড়ি জমাল ৪০০ কিলোমিটার পথ।

প্রতি মাসেই ইউরোপের বিভিন্ন দেশগুলিতে বেআইনি অনুপ্রবেশের একাধিক ঘটনা সামনে আসে। এমনকী, এই বেআইনি অনুপ্রবেশ করতে গিয়ে দুঃসাহসিক সব পদক্ষেপও নেন অনুপ্রবেশকারীরা। আর এই অনুপ্রবেশের সময়ে একাধিক মর্মান্তিক দুর্ঘটনার খবরও সামনে আসে। যেমন, গত বছরই সমুদ্রতটে পাওয়া গিয়েছিল সিরিয়ার পাঁচ বছরের শিশু আয়লানের দেহ। ছোট্ট আয়লানের মৃত্যু এতটাই মর্মান্তিক ছিল যে, তা আজও বিশ্বজুড়ে মানুষের স্মৃতিতে টাটকা হয়ে আছে। এমনকী, প্রায়শই ইতালি ও গ্রিসের ভূখণ্ড-লাগোয়া সমুদ্রে বেআইনি অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে নৌকা উল্টে যাওয়ার একাধিক খবরও সামনে আসে। কিছুদিন আগে লিবিয়ায় ৪০০ বেআইনি অনুপ্রবেশকারীকে নিয়ে উল্টে গিয়েছিল একটি নৌকা।
সম্প্রতি বেআইনি অনুপ্রবেশ নিয়ে এমনই আরও এক দুঃসাহসিক ঘটনা সামনে এসেছে। ইটালিতে বেআইনি অনুপ্রবেশের কারণে এক আফগান যুবককে আটক করে পুলিশ। একটি ট্রাকে তল্লাশি চালানোর সময়ে ওই আফগান যুবককে লরির তলা থেকে উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সেই আফগান যুবক জানান, ৪০০ কিলোমিটার রাস্তা তিনি লরির তলায় ঝুলে ছিলেন।

কীভাবে ওই যুবক লরির তলায় ঝুলে থাকল? এই নিয়ে লরির বুলগেরিয়ান চালক কিছুই জানাতে পারেননি। ওই বুলগেরিয়ান লরি চালকের দাবি, আফগান যুবক যে লরির তলায় ঝুলে আছেন তা তিনি টেরই পাননি। তার মধ্যে রাস্তায় গাড়ি না থামানোয় কিছুই তিনি বুঝতে পারেননি বলে দাবি করেছেন। বুলগেরিয়ান ওই চালক স্পেন থেকে লরি নিয়ে ইতালির মধ্যে দিয়ে বুলগেরিয়ায় ফিরছিলেন।

আফগান যুবককের দাবি, তিনি ইতালিতে থাকার জন্য এমন ভয়ঙ্কর পদক্ষেপ নেননি। ইতালি পুলিশের ধারণা, ওই যুবক ইউরোপের অন্য কোনও দেশে পালানোর চেষ্টায় ছিল। উদ্ধারের পরে ওই আফগান যুবককে হাসপাতালে পাঠিয়ে চেকআপ করানো হয়। তাঁর কাছ থেকে কোনও পাসপোর্ট মেলেনি। আফগান যুবককে ইতালি ছাড়তে ৭ দিনের সময়সীমা দেওয়া হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই