মেইন ম্যেনু

ট্রাম্পকে নিয়ে রিপাবলিকান শিবিরে ফাটল

আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির একাংশ তাদের মনোনীত প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে মেনে নিতে পারছেন না বলে গুঞ্জন উঠেছে। যদিও ট্রাম্প দাবি করেন, দল এখনো ঐক্যবদ্ধভাবেই প্রচার চালাচ্ছে।

ফ্লোরিডাতে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে গিয়ে ট্রাম্প বলেন, ‘ভালোভাবেই প্রচারণা চলছে। দলে কোন বিভেদ নেই।’

শুধু গুঞ্জন নয়, রিপাবলিকান দলের অনেকে প্রকাশ্যেই ট্রাম্পের বিরোধিতা করছেন। কেউ কেউ তাকে ‘মানসিক ভারসাম্যহীন’ আখ্যা দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন, ভোট প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্র্যাটিক পার্টি প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে দেবেন।

এটা স্পষ্ট যে, আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দল জোটবদ্ধ হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্র্যাটদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের চেয়ে ট্রাম্প-বিরোধিতাতেই মেতে উঠেছেন।

ট্রাম্প নিয়ে রিপাবলিকানদের মত বিরোধের দুই-একটা উদাহরণ দেয়া যাক। এক, রিপাবলিকান পার্টির তহবিল সংগ্রাহক মেগ হুইটম্যান বলেন, ‘ট্রাম্পের কথাবার্তায় জাতীয় সংহতিই না বিপন্ন হয়ে যায়!’

দুই, রিপাবলিকান পার্টির জঁ হাল্পার-হায়েস বলেন, ‘ট্রাম্পের কোনো কিছুই ঠিক নেই। উনি মানসিক ভারসাম্যহীন।’

তিন, রিপাবলিকান- কংগ্রেসের স্পিকার পল রায়ান আর সিনেটর জন ম্যাকেন প্রকাশ্যেই বলেছিলেন, নভেম্বরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রাক-মুহূর্তে রিপাবলিকান পার্টি বরং আরো একবার কনভেনশন ডেকে ঠিক করুক, কাকে তারা হিলারির বিরুদ্ধে লড়তে পাঠাবে।

চার, ট্রাম্পের লাগাতার মুসলিম-বিদ্বেষ রিপাবলিকান পার্টির বহু সিনেটর আর বিভিন্ন প্রদেশে তাদের গভর্নর ও প্রবীণ নেতাদের এতটাই চটিয়ে দিয়েছে যে তারা নিজেদের মধ্যে সই সংগ্রহ করতে শুরু করে দিয়েছেন।

মঙ্গলবার ওবামা বলেছিলেন, ‘‘ট্রাম্প কি হোয়াইট হাউসে যাওয়ার যোগ্য? রিপাবলিকানরা একটু ভেবে দেখুন!’’






মন্তব্য চালু নেই