মেইন ম্যেনু

ট্রাম্পের নতুন ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আটকে দিলেন আদালত

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নতুন ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা-সংক্রান্ত নির্বাহী আদেশ আটকে দিলেন হাওয়াইয়ের একজন কেন্দ্রীয় বিচারক।

স্থানীয় সময় ১৬ মার্চের শুরু থেকে এ আদেশ কার্যকর হওয়ার কথা ছিল। এর কয়েক ঘণ্টা আগে ট্রাম্পের আদেশটি আটকে দিলেন হাওয়াইয়ের ডিস্ট্রিক্ট জাজ ডেরিক ওয়াটসন।

জাতীয় নিরাপত্তার কথা বলে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বিষয়ে নির্বাহী আদেশ জারি করার সরকারি যুক্তিতর্ককে ‘প্রশ্নবোধক প্রমাণ’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন বিচারক ওয়াটসন।

বিবিসি অনলাইনের এক খবরে বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এই রায়কে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ‘অপ্রত্যাশিত বিচারিক হস্তক্ষেপ’ হিসেবে মন্তব্য করেছেন।

ট্রাম্পের নতুন ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার নির্বাহী আদেশে বলা হয়েছে, ছয়টি মুসলিম দেশের নাগরিকরা ৯০ দিন এবং শরণার্থীরা ১২০ দিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারবে না।

ট্রাম্পের দাবি, সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে দূরে রাখতে এই ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন তিনি। কিন্তু সমালোচকদের দাবি, এটি বৈষম্যমূলক পদক্ষেপ।

২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার এক সপ্তাহ পর ২৭ জানুয়ারি প্রথমবার ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেন ট্রাম্প। ওই নিষেধাজ্ঞা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও বিশ্বজুড়ে বিক্ষোভ ফুঁসে ওঠে। বেছে বেছে সাতটি মুসলিম দেশের বিরুদ্ধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করায় ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বৈষম্যের অভিযোগ ওঠে।

এ ছাড়া সেবার হঠাৎ নিষেধাজ্ঞা জারি করায় বিমানবন্দরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা দেশের গ্রিন কার্ডধারী নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে গিয়ে অনেককে বিমানবন্দরে অভিবাসন কর্মকর্তাদের হাতে আটক হতে হয়েছে।

শেষ পর্যন্ত ট্রাম্পের প্রথমবারের তুমুল বিতর্কিত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা সিয়াটলের একটি আদালত রহিত করেন। ফলে অকার্যকর হয়ে যায় নির্বাহী আদেশ এবং অভিবাসনের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু শঙ্কা ও আতঙ্ক কাটতে না কাটতেই আবার ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেন ট্রাম্প। নতুন ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় কিছু বিষয় প্রত্যাহার করা হলেও মোটা দাগে সেই মুসলিমদেরই টার্গেট করা হয়।

আগের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার তালিকায় ছিল ইরাক, ইরান, সিরিয়া, ইয়েমেন, লিবিয়া, সুদান ও সোমালিয়া। নতুন নিষেধাজ্ঞায় ইরাকের নাম বাদ দেওয়া হয়। আর সিরীয় শরণার্থীদের ওপর অনির্দিষ্টকালের নিষেধাজ্ঞা না রেখে সব শরণার্থীদের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে ১২০ দিনের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

নতুন ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা হাওয়াইয়ের আদালত আটকে দেওয়ায় স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যায় টেনেসি রাজ্যের ন্যাশভিলে এক সমাবেশে ট্রাম্প বলেন, হাওয়াইয়ের আদালতের রায়ের ফলে ‘যুক্তরাষ্ট্রকে দুর্বল’ দেখাবে।

তিনি আরো বলেন, যেখানে প্রয়োজন, সেখানে এ মামলা নিয়ে যাবেন। প্রয়োজনে সুপ্রিম কোর্টে যাবেন। তিনি যুক্ত করেন, ‘আমরাই জিততে যাচ্ছি।’






মন্তব্য চালু নেই