মেইন ম্যেনু

ট্রেনে অভিযান চালাতে গিয়ে পুলিশের সাথে হিজড়াদের সংঘর্ষ : ৬ পুলিশ আহত

নীলফামারীর সৈয়দপুরে বৃহস্পতিবার দুপুরে (৯ জুন) আন্তঃনগর তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেনে চোরাচালানি অভিযান চালাতে গিয়ে জিআরপি পুলিশ ও হিজড়াদের সাথে তুমুল সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। প্রায় ঘন্টাব্যাপী ধাওয়া- পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল ছোঁরাছুরি ও সংঘর্ষে ৬ পুলিশ গুরুতর আহত হয়েছে।

বিশেষ সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা তিতুমীর আন্তঃনগর ট্রেনটি সৈয়দপুর স্টেশনে পৌঁছা মাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দেওয়ান লালন আহমেদ ও সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার কাজী আহসান হাবিবের নের্তৃত্বে জিআরপি থানা পুলিশ ট্রেনে চেরাচালানির মালামাল উদ্ধারে অভিযান চালায়। এসময় ভারতীয় হরলিক্স, জিরা আটক করে পুলিশ। হিজড়ারা তাদের আটককৃত মালামাল ফেরতের দাবি জানিয়ে স্টেশন প্লাটফর্মে অবস্থান নিয়ে পুলিশ বিরোধী শ্লোগান দিতে থাকে।

পরে হিজড়ারা জোটবদ্ধ হয়ে পুলিশের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন এবং মারপিট করে চরমভাবে লাঞ্ছিত করেন। এতে জিআরপি থানার কনষ্টেবল সুজন (৩৮), রবিউল ইসলাম (৩৮) সহ তাৎক্ষণিক নাম না আরও ৪ জন আহত পুলিশকে সৈয়দপুর ১শ’ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সংবাদ সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত সাংবাদিক এম আর ঝন্টুও হিজড়াদের ছোড়া পাটকেলে আহত হলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ এই ঘটনায় ৫ জন হিজড়াকে আটক করেছে।

সৈয়দপুর জিআরপি থানার আফিসার ইনচার্জ লুৎফর রহেমান জানান, হিলি সীমান্ত থেকে অবৈধ পথে হিজড়া কর্তৃক নিয়ে আসা ভারতীয় জিরা-হরলিক্স জব্দ করায় তারা ক্ষুদ্ধ হয়ে পুলিশের উপর আক্রমণ চালিয়েছে। আমাদের ছয়জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। হিজড়াদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।






মন্তব্য চালু নেই