মেইন ম্যেনু

ডিমলায় গৃহবধুর লাশ পুকুর থেকে উদ্ধার : স্বামী পলাতক

হামিদা আক্তার বারী, ডিমলা (নীলফামারী) থেকে : নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় এক গৃহবধুঁর লাশ উদ্ধার করেছে ডিমলা থানার পুলিশ। এ ঘটনায় মৃত গৃহবধুঁর স্বামী ৩ সন্তান নিয়ে পালিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

জানা যায়, উপজেলার খালিশা চাপানী ইউনিয়নের ছোটখাতা গ্রামের ছামিনুর রহমানে (৩৫)’র স্ত্রী ৩ সন্তানের জননী গৃহবধুঁ তারজিনা বেগম (৩০) গত রোববার দিনগত রাত ৯টা থেকে নিখোঁজ হয়। গৃহবধুঁর স্বামীর বাড়ী থেকে এমন খবর জানানো হয়েছে পিতা তাহেজ উদ্দিনের কাছে। মৃত গৃহবধুঁর পিতা তাহেজ উদ্দিন খবর পেয়ে ছুটে আসেন জামাইয়ের বাড়ীতে। কিন্তু জামাই তার নাতী-নাতনীদের নিয়ে পালিয়ে যাওয়ায় বাড়ীতে পাননি বলে জানান গুহবধুঁর পিতা তাহেজ উদ্দিন। মো: তাহেজ উদ্দিন উপজেলার ঝুনাগাছ চাপানী বালাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

অনেক খুজাঁখুঁজির পর আজ সোমবার সকাল ৯ টার দিকে গৃহবধুঁর স্বামীর বাড়ী থেকে মাত্র ২’শ গজের দুরত্বে একটি পুকুরে সন্ধান চালিয়ে গৃহবধুঁর লাশ খুঁজে পাওয়া যায়। এ ঘটনায় ডিমলা থানার পুলিশের এসআই এম ইলিয়াসের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সসহ গৃহবধুঁর লাশ উদ্ধার করে ডিমলা থানায় নিয়ে আসেন।

এদিকে গৃহবধুঁ নিখোজের পর থেকে ৩ সন্তানকে নিয়ে মৃত গৃহবধুঁর স্বামী ছামিনুর রহমান পলাতক রয়েছে । ডিমলা থানার পুলিশ জানিয়েছেন মৃত গৃহবধুঁর লাশ মর্গে পাঠানো হবে সুরুতহাল রিপোর্টের জন্য।

নীলফামারী মর্গ থেকে গৃহবধুঁর লাশ ফেরত এলে মৃতদেহ গৃহবধুঁর স্বজনদের কাছে হসন্তান্তর করা হবে বলে ডিমলা থানার ইনচার্জ (ওসি) রুহুল আমীন খাঁন জানিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই