মেইন ম্যেনু

ডিসি সায়মার কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা চেয়ে সন্তানদের হত্যার হুমকি

শামীম রেজা, চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুছের কাছে চরমপন্থী দলের পরিচয়ে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করা হয়েছে। রবিবার বিকালে পূর্ব বাংলা কমিউনিষ্ট পাটি (এম এল) এর আঞ্চলিক নেতা মেজর জিয়াউর রহমান নাম পরিচয় দিয়ে এই চাঁদা দাবি করা হয়।

চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুছ জানান, রবিবার আনুমানিক রাত আড়াইটার দিকে ০১৮৮২-৬২৮২৭৫ নাম্বার থেকে তার মোবাইল ফোনে কল আসে। ফোনটি রিসিভ করতেই অপর প্রান্ত থেকে পূর্ব বাংলা কমিউনিষ্ট পাটি (এম এল) এর আঞ্চলিক নেতা পরিচয় দিয়ে জনৈক মেজর জিয়াউর রহমান তার কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে।

এ সময় বলা হয়“সায়মা ইউনুস আমি মেজর জিয়া, কিছুদিন হলো কলকাতা থেকে দেশে এসেছি। পাটির বেশ কিছু সদস্য বর্তমানে জেল হাজতে মানবাতর জীবন যাপন করছে। তাদের মুক্ত করতে পাটির ৫০ লাখ টাকা দরকার। ইতিমধ্যে ৪০ লাখ টাকা জোগাড় করা হয়েছে। বাকী ১০ লাখ টাকা আপনাকে দিতে হবে। চাঁদার টাকা না দিতে পারলে পরিবারের সবাইকে হত্যা করা হবে”।

বিষয়টি ওই দিন রাতেই জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার রশীদুল হাসানকে অবহিত করলে পুলিশের পক্ষ থেকে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করা হয়। ডাইরি করেন সদর থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক শরীফ হোসেন।

চুয়াডাঙ্গা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন জানান, যে নাম্বার থেকে হুমকি দেয়া হয়েছে সেই নাম্বারটি সনাক্ত করার কাজ শুরু করেছে পুলিশ। নাম্বারটি ট্রাকিং করে জানা গেছে মাদারীপুর থেকে ফোনটি করা হয়েছে। হুমকিদাতাকে আটক করার জন্য পুলিশ কাজ করছে বলে তিনি জানান।






মন্তব্য চালু নেই