মেইন ম্যেনু

ঢাকাকে সহজে হারালো কুমিল্লা

আজহার জয়েদীর ব্যাটিং এবং আবু হায়দার রনির বোলিংয়ে আজ দিনের প্রথম ম্যাচে ঢাকা ডাইনামাইটসকে ১০ রানে হারিয়ে দিল মাশরাফির কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ৬ ম্যাচে কুমিল্লার পয়েন্ট এখন ৮। ৮ পয়েন্ট বরিশাল বুলস ও রংপুর রাইডার্সেরও। অন্যদিকে ৬ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে ঢাকা ডাইনামাইটস।

১৪২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে ২ উইকেটে হারিয়ে চাপে পড়ে ঢাকা ডাইনামাইটস।তবে দুই ব্যাটিং স্তম্ভ সাঙ্গকারা ও নাসির হোসেনের দৃঢ়তায় চাপ সামলে ঠিকঠাকই এগেুচ্ছিলো দলটি। কিন্তু সাঙ্গাকারা (৩০), নাসির (৩২) পরপর বিদায় নিলে ফের চাপে পড়ে ঢাকা। তবে শেষ দিকে বেশ জমে ওঠে ম্যাচটি। শেষ ১২ বলে দরকার পড়ে ২৫ রান। হাতে ছিল ৫ উইকেট। কিন্তু আবু হায়দার রনির করা ওভারে মাত্র ৮ রান নিতে পারলো ঢাকা। মানে শেষ ওভারে চাই ১৭ রান।কিন্তু অসে মাত্র ৫ রান। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ১৩১ রান করতে পারে ঢাকা ডাইনামাইটস। ২টি উইকেট নেন রনি।

এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ১৪১ রান করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। এদিন টস জিতে মাশরাফিদের ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান সাঙ্গাকারা। এদিন শুরু থেকেই কুমিল্লাকে চেপে ধরে ঢাকার বোলাররা। আহমেদ শেহজাদকে (৯) ফিরিয়ে শুরুটা করেন ফরহাদ রেজা। এরপর ইমরুলকে (৭) ফেরান আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে যায়গা পাওয়া মুস্তাফিজ। দুজন ফিরে যাওয়ার পর কেউই থিতু হতে পারেননি। বড় ইনিংস খেলার আভাস দিয়ে লিটন দাসও ফিরে যান ৩৪ বলে ৩১ রানে। বাকিদের স্কোর- শোয়েব মালিক ১৩ বলে ৮, মাশরাফি ৫ বলে ২, অলক কাপালি ১০ বলে ১০। শেষ দিকে জাইদির অপরাজিত ৪৫ রানের কল্যাণে স্কার ভদ্রস্ত করতে সমর্থ হয় দলটি।

বিপিএল শুরুর দিন মুখোমুখি হয়েছিলো এই দুই দল। সেই ম্যাচে ৬ উইকেটে জিতেছিলো ঢাকা ডায়নামাইটস।






মন্তব্য চালু নেই