মেইন ম্যেনু

ঢাকায় চীনা প্রেসিডেন্টের ঐতিহাসিক ২২ ঘণ্টা

২২ ঘণ্টার এক ঝটিকা সফরে শুক্রবার ঢাকায় পা রাখেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। ক্ষমতাধর যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতির জন্য ক্রমেই বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে ওঠা চীনের প্রেসিডেন্ট জিনপিংয়ের এ সফর ঘিরে বাংলাদেশে শুরু থেকেই ছিল উচ্চাশা। জিনপিংয়ের এ সফর সে আশা পূরণ করেছে বলেই আপাত দৃষ্টিতে মনে করা হচ্ছে।

এ সফরে বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে ২৬টি দ্বিপাক্ষিক চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। দু’দেশের সম্পর্ক জোরদারের পাশপাশি চীনা প্রেসিডেন্টের কাছ থেকে প্রতিশ্রুতি এসেছে বড় প্রকল্পগুলোতে সহায়তা বাড়াবে তার দেশ। জিনপিংয়ের এ সফরের ফলে বাংলাদেশ-চীনের সম্পর্কে নতুন মাত্রা যোগ হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

শুক্রবার দুপুর ১২টা ৩ মিনিটে বিমান থেকে বেরিয়ে আসার পর শনিবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে ভারতের উদ্দেশে বিমানে ওঠার আগ পর্যন্ত ব্যস্ত সময় পার করেছেন শি জিনপিং। তার এই সফরের আদ্যোপান্ত তুলে ধরা হলো।

ঢাকায় অবতরণ
শুক্রবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে এয়ার চায়নার স্পেশাল ভিভিআইপি ফ্লাইটে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান শি জিনপিং। বিমানবন্দরে চীনা প্রেসিডেন্টকে স্বাগত জানান প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ, সেনাবাহিনী-বিমানবাহিনী-নৌবাহিনী প্রধান ও মন্ত্রিসভার সদস্যরা। পরে তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করে সামরিক বাহিনীর সুসজ্জিত একটি দল।

হোটেল লা মেরিডিয়ামে বিশ্রাম
দুপুর ১২টা ১৫ মিনিটে সময় তার সফরসঙ্গীসহ সবাইকে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় নিয়ে যাওয়া হয় খিলখেতের হোটেল লা মেরিডিয়ানে। সেখানে সামান্য বিশ্রাম নেন শি জিনপিং।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রবেশ
দুপুর ২টা ৪৫ মিনিটে বাংলাদেশ-চীন দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে অংশ নিতে শি জিনপিংকে বহনকারী গাড়িবহর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রবেশ করে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

শেখ হাসিনা-শি জিনপিং বৈঠক
বিকেল ৩টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসেন চীনা প্রেসিডেন্ট। বৈঠক চলে ৪টা ১০ মিনিট পর্যন্ত।

চুক্তি সই
বিকেল ৪টা ১৫ মিনিটে বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে ২৭ ধরনের দ্বিপাক্ষিক চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়। উদ্বোধন করা হয় ৬টি প্রকল্প।

স্পিকারের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ
বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে হোটেল লা মেরিডিয়ানে ফিরে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন চীনা প্রেসিডেন্ট।

খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক
বিকেল ৫টা ৩৫ মিনিটে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠকে বসেন শি জিনপিং। বৈঠক চলে ৪০ মিনিট। বৈঠকে দুই দেশের পারস্পরিক স্বার্থ নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বঙ্গভবনে শি জিনপিং
সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বঙ্গভবনে উপস্থিত হন চীনা প্রেসিডেন্ট। কেবিনেট হলে বৈঠকে বসেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে। বৈঠকের পর রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে নৈশভোজে অংশ নেন শি জিনপিং।

নৈশভোজের মাধ্যমেই শুক্রবারে কর্মসূচি শেষ হয় চীনা প্রেসিডেন্টের।

স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা
শনিবার সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে পৌঁছান চীনা প্রেসিডেন্ট। সেখানে ১৯৭১ সালে স্বাধীনতাযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান তিনি। তিনি সেখানে ১৫ মিনিট অবস্থান করেন। এটিই ছিল তার ঢাকা সফরের শেষ কর্মসূচি।

ঢাকা ত্যাগ
সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে ভারতের গোয়ার অনুষ্ঠিতব্য ব্রিকস সম্মেলনে যোগ দিতে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন শি জিনপিং। সেখানে তাকে বিদায় জানাতে উপস্থিত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।






মন্তব্য চালু নেই