মেইন ম্যেনু

ঢাকায় বসে বেলজিয়াম বিএনপির সমাবেশ ফখরুল

দশম সংসদ নির্বাচনের তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে বিএনপির ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ এর সমাবেশ হয়েছে ইউরোপের দেশ বেলজিয়ামে। আর এই সমাবেশে ঢাকা থেকেই অংশ নেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ইউরোপের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বক্তব্য রাখলেন টেলি কনফারেন্সে।

দশম সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণের দিক ৫ জানুয়ারি বাংলাদেশের পাশাপাশি ইউরোপ বিএনপিও নানা কর্মসূচি পালন করে। এর মধ্যে ছিল বেলজিয়ামের সমাবেশ। দেশটির রাজধানী ব্রাসেলসে ইউরোপীয় কমিশনের সামনে এই সমাবেশের ডাক দেয় বেলজিয়াম বিএনপি।

মির্জা ফখরুল সমাবেশে উপস্থিত নেতা-কর্মীদেরকে বলেন, ‘আওয়ামী লীগ মানুষ হত্যা করে দেশে রাজতন্ত্র কায়েম করার চেষ্টা করছে। মানুষ গুম করে, খুন করে এই চেষ্টা কোনো ভালো ফল বয়ে আনবে না। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন দিতে হবে।’

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে নির্ধারিত ইইউর সদর দপ্তরের সামনে বিএনপির কয়েকশ নেতাকর্মী সেখানে বাংলাদেশ সরকারবিরোধী স্লোগান দেয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এই সমাবেশের লাইভ সম্প্রচার করা হয়।
সমাবেশ শেষে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও পার্লামেন্টের প্রতিনিধির কাছে বেলজিয়াম বিএনপির নেতারা বাংলাদেশ সরকারের বিরুদ্ধে হত্যা, গুম ও লুটপাটের অভিযোগ আনেন। একই সঙ্গে আওয়ামী লীগ সরকার অপসারণে তারা ইউরোপীয় ইউনিয়নের সহযোগিতা চান।

একই সঙ্গে বাংলাদেশে দ্রততম সময়ের মধ্যে সব দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে প্রতিনিধিত্বশীল সরকার গঠনের দাবি জানায় বেলজিয়াম বিএনপি।

সমাবেশে বেলজিয়াম সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা জুলিয়েন মিলকেল সংহতি জানান। তিনি বাংলাদেশে আইনের শাসন ও মানবাধিকার নিশ্চিতের দাবি করে অবিলম্বে সব ধরনের বিচার বহির্ভুত হত্যা, খুন, গুম বন্ধের দাবি জানান।

বেলজিয়াম বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি আহমেদ সাজা মিয়ার সভাপতিত্বে ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল হোসেন বাবুর পরিচালনায় এই সমাবেশে আলী জাহাঙ্গীর, সৈয়দ মাহমুদ আক্কাছ, জুসেফ দাশ গুপ্তা, হাসান রাকিব প্রধান, শ্যামল আহমদ, আবুল হাসনাত শামছুল, মোয়াজ্জেম হোসেন, জসিম মোল্লা, আশিক আহমদ বাপ্পী, নাহিদা আক্তার বাবু,ঝরনা ফেরদুসি, মাহমুদা খানম, সুবর্না আক্তার নিলুফার ইয়াসমিন,মনিরা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।






মন্তব্য চালু নেই