মেইন ম্যেনু

ঢাকা টাঙ্গাইল মহাসড়ক : দুই ঘণ্টার পথ ১২ ঘণ্টায়

ঈদে উত্তরের ১৬ জেলা, দক্ষিণের কুষ্টিয়া অঞ্চল আর টাঙ্গাইলের পথের বাসযাত্রীরা প্রতি বছরই ভোগে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের যানজটে। মহাসড়কের মির্জাপুর, দেলদুয়ার, বাসাইল, টাঙ্গাইল সদর, কালিহাতী ও ভূঞাপুরের অংশটুকুতে সারা বছরই লেগে থাকে যানজট। মাঝে মধ্যেই যানজটের সারি চন্দ্রা থেকে এলেঙ্গা পর্যন্ত দীর্ঘ হয়ে যায়।

এবার ঈদ যাত্রা শুরুর আগেই দীর্ঘ যানজটের ভোগান্তি শুরু হয়ে গেছে। গত কয়েকদিন ধরেই এ সড়কে থেমে থেমে যান চলছে। বুধবার থেকে যানজট স্থায়ী আকার ধারণ করেছে। উত্তরবঙ্গের অনেক বাস দেলদুয়ারের ওপর দিয়ে সাভার হয়ে ঢাকা যাচ্ছে। আবার কেউ আসছে সাগরদীঘি হয়ে গাজীপুর দিয়ে রাজধানীতে যাচ্ছে। এতে বিকল্প লোকাল সড়কেও যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। ঈদে অতিরিক্ত যাত্রী চাপে যানবাহন বাড়ার পাশাপাশি এ ঈদে যোগ হচ্ছে কোরবানির পশু বহনকারী ট্রাকের চাপ।

ঢাকার কল্যাণপুর থেকে ছেড়ে আসা সকাল-সন্ধ্যা এসি বাসের যাত্রী পলিটেকনিক শিক্ষার্থী আসাদ মিয়া জানান, বুধবার সন্ধ্যা সাতটায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা বাসটি টাঙ্গাইল পৌঁছে বৃহস্পতিবার সকাল সাতটায়। অর্থাৎ দুই ঘণ্টার পথ লেগেছে ১২ ঘন্টা।

ঈদের আগের দিনগুলোতে অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে মহাসড়কে কতোটুক যানজট হতে পারে, সে নিয়ে রীতিমতো উদ্বিগ্ন পুলিশ। আতঙ্কিত যাত্রীসহ দূরপাল্লার যানবাহনের চালকরা।

গোড়াই হাইওয়ে পুলিশের কর্মকর্তা খলিলুর রহমান বলেন, মহসড়কে পশুবাহী ট্রাকের সংখ্যা বেড়ে যাওয়া প্রতিনিয়ত যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। তবে যানজট নিরসনে অতিরিক্ত পুলিশ কাজ করছে।






মন্তব্য চালু নেই