মেইন ম্যেনু

ঢামেকে রোগীর শিশু চুরির সময় নারী আটক

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিট থেকে এক রোগীর শিশু চুরির সময় পলি আক্তার নামে এক নারীকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি শাহবাগ থানায় আছেন।

শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আয়শা আক্তার নামে ১৮ মাস বয়সী শিশুটির বাবা মাসুদ দীর্ঘ প্রায় পাঁচ মাস ধরে বার্ন ইউনিটের পঞ্চম তলার ৫২৫নং ওয়ার্ডের ১৬নং বেডে চিকিৎসাধীন। সঙ্গে স্ত্রী রেহানা বেগমও থাকছেন।

পলি আক্তার অনেক দিন থেকেই ওই ওয়ার্ডে গিয়ে তাদের সঙ্গে দেখাসাক্ষাৎ করেন, শিশুটিকে আদর করেন, এভাবে তাদের মধ্যে বেশ খাতির জমে যায়। তেমনি শুক্রবার ৫টার দিকে এসে মাসুদ ও রেহানার সঙ্গে গল্প জমান। এসময় রেহানা কাজে বাইরে যান এবং মাসুদ যান বাথরুমে। কিন্তু তারা ফিরে এসে দেখেন বাচ্চাটি নেই, পলিও নেই। হইচই শুরু করলে পাশের বেডের লোকজন বলে, ওই মেয়েটা যে আপনাদের আত্মীয় হয় নাকি, শিশুটিকে নিয়ে গেছে।

তখন রেহানা চিৎকার করতে করতে নিচে নামতে থাকেন। এসময় দায়িত্বরত আনসার সদস্য মনির হোসেন পলিকে নিচতলায় শিশুসহ আটক করে পুলিশ ক্যাম্প পরিদর্শক মোজাম্মেল হকের কাছে সোপর্দ করেন। পরে তাকে এখন শাহবাগ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

শিশুটিকে নিয়ে কেন পালাচ্ছিলেন? এ প্রশ্নে পলি আক্তার বলেন, ‘আমি পালাইনি, আবার দিয়ে আসতাম।’

এখানে হাসপাতালে কেন এসেছেন জানতে চাইলে বলেন, নতুন ভবনের ৭০১ ওয়ার্ডে আমার আত্মীয় আছে, নাম মোসলেম। কিন্তু খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সেখানে মোসলেম নামে কেউ নেই।

পলির গ্রামের বাড়ি যশোরের চৌগাছার পুর্বপাড়া গ্রামে।






মন্তব্য চালু নেই