মেইন ম্যেনু

ঢামেকে শিশু চুরির চেষ্টা, নারী আটক

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিট থেকে শিশু চুরির চেষ্টার অভিযোগে পলি আক্তার (২০) নামে এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

অভিযুক্ত পলিকে শুক্রবার বিকেল ৫টায় আটক করে হাসপাতালের ক্যাম্প ফাঁড়ির পুলিশ। পরে তাকে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করা হয়।

ক্যাম্প ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মোজাম্মেল হক জানান, বার্ন ইউনিটে ভর্তি সবুজ মিয়ার দেড় বছর বয়সী মেয়ে আয়েশাকে চুরির চেষ্টা করেছিলেন পলি। কিন্তু শিশুটির মায়ের তৎপরতায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়।

শিশু আয়েশার মা রেহানা আক্তার বলেন, ছয় মাস আগে বিদুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর দগ্ধ স্বামী সবুজ মিয়াকে নিয়ে বার্ন ইউনিটে আছি। বাড়ি যশোর চৌগাছার পূর্বপাড়ায়।

তিনি বলেন, ‘বৃহস্পতিবার রাতে পলি আক্তার তাদের বেডে এসে নানা ছুতোয় কথা বলতে চায়। নানা বাহানায় সে আমার সঙ্গে ভাব জমাতে চায়। আমি পাত্তা দেই নাই। সে আবার শুক্রবার সকালে আসে। আমার মেয়েকে দেখে বলে— কী ফুটফুটে মেয়ে! তার হাবভাব আমার ভালো লাগেনি। তারপর বিকেলের দিকে সে কৌশলে আমার মেয়েকে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে।’

রেহানা বলেন, ‘বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পলি আক্তার আয়েশাকে নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গেটে রিকশাযোগে পালানোর চেষ্টা করে। আমি কর্তব্যরত আনসার সদস্য মনিরকে বিষয়টি জানায়। পরে মনির তাকে আটক করে।’

মোজাম্মেল হক বলেন, পলি আক্তারের বাড়ি শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায়। সপ্তাহখানেক আগে মোসলেম নামের জনৈক এক ব্যক্তি নিজেকে হাসপাতালের ‘ক্ষমতাবান কর্মকর্তা’ হিসেবে পরিচয় দিয়ে তাকে ঢাকায় নিয়ে আসে।

তিনি বলেন, ‘মোসলেম নামে আদৌ হাসপাতালের কোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারী আছে কিনা— তা আমরা খতিয়ে দেখব। পলিও পাচারকারী দলের কেউ কিনা— তাও তদন্ত করা হবে।’






মন্তব্য চালু নেই