মেইন ম্যেনু

ঢিলেঢালাভাবে চলছে জামায়াতের হরতাল

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নেতা মীর কাসেম আলীর ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ থেকে খারিজ হওয়ায় দলটির ডাকা সকাল সন্ধ্যার হরতাল ঢিলেঢালাভাবে চলছে।

বুধবার সকালে সরেজমিনে দেখা গেছে, রাজধানীতে সকালে সীমিত থাকলেও সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে যানবাহনের সংখ্যাও। তবে প্রাইভেটকারের চলাচল কম।

সকাল থেকে এখন পর্যন্ত রাজধানীর কোথাও সহিংসতা ও নাশকতামূলক কর্মকাণে।ডর খবর পাওয়া যায় নি। হরতালে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে বিভিন্ন স্থানে টহল দিচ্ছেন পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

অন্যদিকে রাজধানীর নিরাপত্তা স্বাভাবিক রাখতে ও নাশকতা এড়াতে বুধবার রাত থেকেই কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

ঢাকা মহানগর পুলিশের পাশাপাশি মোতায়েন করা হয়েছে র্যাব। বুধবার সকাল থেকে দেখা গেছে, রাজধানীর মিরপুর, কল্যাণপুর, মোহাম্মদপুর, ফার্মগেট, কারওয়ানবাজার, শাহবাগ, যাত্রাবাড়ী, পল্টন, বায়তুল মোকাররম, মতিঝিল, কলাবাগান, সাইন্স ল্যাব, গাবতলীসহ বিভিন্ন এলাকার মোড়ে মোড়ে পুলিশের বিপুল সংখ্যক সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে।

এসব এলাকায় যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্টে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগেরি উপ-কমিশনার(ডিসি) বিপ্লব কুমার সরকার জানান, জামায়াতের হরতালে রাস্তায় যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। তেজগাঁও এলাকাসহ প্রত্যেকটি গুরুত্বপূর্ণ ও স্পর্শকাতর পয়েন্টে পর্যাপ্ত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

মিরপুর বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মাসুদ আহমেদ বলেন, মিরপুর এলাকায় স্বাভাবিক গতিতে সবই চলছে। তবে বাড়তি সতর্কতা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সবখানে পুলিশ সদস্য মোতায়েন রেখে নজরদারি চলছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেসন্স বিভাগের উপ-কমিশনার(ডিসি) মাসুদুর রহমান বলেন, হরতালে এখন পর্যন্ত কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য নিয়োজিত রয়েছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর কিছু ঘটলেই সেখানে তড়িৎ পৌছে যাবে পুলিশ সদস্যরা।

গতকাল সকালে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের আপিল বেঞ্চে মীর কাসেমের রিভিউ আবেদন খারিজ করে মৃত্যুদণ্ডের রায় বহাল রাখেন। এ রায়ের প্রতিবাদে বুধবার সকাল সন্ধ্যা হরতাল আহ্বান করে জামায়াতে ইসলামী।






মন্তব্য চালু নেই