মেইন ম্যেনু

তদন্ত চলা কালে উভয় পক্ষের হামলায় নারী-পুরুষসহ ৭ব্যক্তি আহত

জুলফিকার আলী, কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ রবিবার সকাল ১১টায় কলারোয়া উপজেলার একড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে এলাকাবসীর দেওয়া অভিযোগের তদন্ত চলা কালে এক হামলা সংঘর্ষে উভয় পক্ষের মধ্যে নারী-পুরুষসহ ৭জন আহত হয়েছে। ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, উপজেলার জলালাবাদ ইউনিয়নের একড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছহিলউদ্দিনের বিরুদ্ধে একই এলাকার মতলেব মোড়লসহ ৬২জন গ্রামবাসী তার বিভিন্ন অপকর্মের বিরুদ্ধে উপজেলা শিক্ষা অফিসে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসের সহকারী শিক্ষা অফিসার দুলাল চন্দ্র সরকার রোববার বেলা ১১টায় ওই স্কুলে সকলকে ডেকে শোনা বোঝা করেন।

এসময় মতলেব মোড়ল গ্র“প ও শহিদুল্লাহ গ্র“পের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে হামলা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় উভয় পক্ষের হামলায় এক মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীসহ ৭ ব্যক্তি জখম হয়ে কলারোয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

এই হামলা সংঘর্ষ চলাকালে ছোট ছোট কোমলমতি শিক্ষার্থী স্কুল ছেলে চলে যেতে বাধ্য হয়েছে। পরে খবর পেয়ে কলারোয়া থানার এএসআই জাহিদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনা স্থান পরিদর্শন করেন। আহতরা হলেন-উপজেলার জলালাবাদ ইউনিয়নের একড়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী রিজিয়া বেগম (৬০), নুর ইসলামের ছেলে মোকলেছুর রহমান (৩০), নুর ইসলামের ছেলে মাসুদ রানা(২১), আকবার আলী মোল্লার ছেলে কামরুল মোড়ল (৩৫), আকবার আলীর স্ত্রী ছকিনা বেগম (৫০), আঃ রাজ্জাকের ছেলে সাইফুল্লা (১৮), মুনসুর আলীর ছেলে আঃ রাজ্জাক (৪০)।

এবিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিস সুত্রে জানা গেছে, মুল ঘটনা হলো ওই একড়া স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে রশিটানা টানি সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে এনিয়ে উভয় পক্ষ কলারোয়া থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি নিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই