মেইন ম্যেনু

তনু হত্যার প্রতিবাদে বেরোবিতে মানববন্ধন

এইচ.এম নুর আলম, বেরোবি প্রতিনিধি: কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাসের অলিপুর এলাকায় কুুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী ও সাংস্কৃতিক কর্মী সোহাগী জাহান তনুকে পাশবিক নির্যাতন ও হত্যার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট শাখা ও লাইফ ইজ বিউটিফুল নামের দুটি সংগঠন।

আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত পৃথক পৃথকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট শাখা ও লাইফ ইজ বিউটিফুল নামের সংগঠনের উদ্যোগে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথমে সকাল সাড়ে ১০ টায় তনুর ধর্ষণ-হত্যার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করে বিশ্ববিদ্যালয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট। বেরোবি সভাপতি যুগেশ ত্রিপুরা’র সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে বক্তব্য পেশ করেন ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি এলমিনা মনি, উদীচি শিল্পীগোষ্ঠীর সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ সাদমান, আদিবাসী ছাত্র পরিষদ ও ব্রুডার নেতৃবৃন্দ।

brur 1

বেলা সাড়ে ১১ টায় একই দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘লাইফ ইজ বিউটিফুল’ নামের আরেকটি সংগঠন ক্যাম্পাসে মানববন্ধন করে। ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী রক্তিম মিলনের সঞ্চালনায় একই বিভাগের শিক্ষিকা জিনাত শারমিন, লোক প্রশাসন বিভাগের শিক্ষক আসাদুজ্জামান মন্ডল সহ অন্যান্যরা বক্তব্য উপস্থাপন করেন। মানববন্ধনে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (বেরোবিসাস) পক্ষে সমিতির সহ-সভাপতি তপন কুমার রায় একাত্মা ঘোষনা করে।

বক্তারা বলেন, গত ২০ মার্চ সোহাগী জাহান তনুকে পাশবিক নির্যাতন শেষে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। সেনানিবাস হলো সবচেয়ে সুরক্ষিত নিরাপদ এলাকা, সেখানে কীভাবে তনুকে এ কুকর্ম শেষে খুন করতে পারে তা আজ জনমনে নতুন আশংকা সৃষ্টি করেছে। তনুর মতই সাম্প্রতিক কালে রংপুর মিঠাপুকুর, ফেনিতে ঘটে যাওয়া এরকম ঘটনা দেশে হরহামেশায় ঘটে চলেছে।

এসব ঘটনার তাৎক্ষণিক প্রতিকার ও প্রকৃত দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না হওয়ায় সমাজে অপরাধ প্রবণতা ক্রমান্বয়ে বেড়ে চলেছে। বক্তারা অবিলম্বে তনুর হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।






মন্তব্য চালু নেই