মেইন ম্যেনু

তপ্ত রোদে ঠান্ডা পোশাক

গরম পড়েছে। পথ নেই আর বাঁচবার। ফ্যাশন মাথায় থাক, আরাম চাই আগে। কিন্তু তা বললেই কি হয়? নতুন কলেজ, অফিস প্রেম, বিয়ে বাড়ি এসব তো হবে মাটি। তাই বিক্ষোভের শরীরে কুল মেজাজে এবার নতুন চমক। ডেনিম, ফ্লোরাল ম্যাক্সি ড্রেস আর জাম্প সুট এই তিন ফ্যাশনে তপ্ত শহরের রাস্তায় হট অ্যান্ড কুলেস্ট আপনি।

ঢোলা পাজামা ও ডেনিম: এবছর গরমে ডেনিম ঢোলা পাজামা ফ্যাশনে ইন। শহরের প্যাচ-প্যাচে গরমের সঙ্গে তাল মেলাতে এই প্যান্ট একদম পারফেক্ট। অনেকটা কাপড় নিয়ে বেশ ব্যাগি। হারেমের উপর শর্ট টপ কিংবা স্লিভলেস কুর্তি। একটা বেশ কেয়ারলেস লুক আসে। তাই কলেজ টু্ পার্টি অনায়াসে ক্যারি করা যায় এই পোশাকটি। তবে গরম মানেই হালকা রং নয়, পার্পল, গ্রীন, চেরি রেড কিংবা অরেঞ্জ এই ধরনের ভাইব্র্যান্ট কালার পড়লে গরমে খুব ব্রাইট লাগে।

ডেনিম বরাবরই গরমের কুলেস্ট ফ্যাশন। এবছরও হট লিস্টের প্রথম তিন নম্বর থেকে কেউ সরাতে পারেনি ডেনিমকে। সাদা টপ-শার্ট সঙ্গে ফিকে নীল রঙের ডেনিমের ম্যাচটা যুগে যুগে হিট। তবে শার্ট না পড়ে এবছর পড়ুন ফতুয়া। যার তিন সাইট কাটা। তাহলে অফিসে আপনি হিট।

এই সঙ্গে সুতির পালাজো, পাতিয়ালা, ধুতি প্যান্ট ও গরমে আপনাকে দেবে হট লুক। তবে গরমে জিনস এড়িয়ে চলাই ভাল।

ফ্লোরাল ম্যাক্সি: গরমে সাদা এমনিতেই আরামদায়ক। তবে ফ্লোরাল প্রিন্ট চোখে একটা আলাদা আরাম দেয়। তাছাড়া ম্যাক্সি বেশ ঢিলেঢালা মানে আরামদায়ক সঙ্গে ফ্রী স্টাইল। তাই বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়া থেকে পার্টি ফ্লোরাল ম্যাক্সিতে গরমে থাকুন হটেস্ট হ্যাপেনিং।

জাম্প স্যুট: এক রঙা থেকে ফ্লোরাল প্রিন্ট জেন ওয়াইয়ের কাছে ট্রেন্ডি এখন জাম্প স্যুট। তবে এবছর ফুল নয়, হাফ জাম্প স্যুট ইন ফ্যাশন। সেই সঙ্গে একপাটের নয় এগরমে দুপাটের জাম্প স্যুট হট।






মন্তব্য চালু নেই