মেইন ম্যেনু

তবুও তার হার্টবিট ছিল ৩০ মিনিট

মোহাম্মদ আলীর কন্যা হানা আলী দিলেন এমন তথ্য। হানা আলী বলেন, হাসপাতালে আমরা তখন তার হাত ধরে উচ্চস্বরে সূরা কালাম পড়ে যাচ্ছিলাম। ডাক্তাররা জানালেন তিনি আর নেই। তার শরীরের সব অঙ্গ তখন নিষ্ক্রিয়। কিন্তু আমরা দেখলাম তার হৃদস্পন্দন সচল। আর তার হার্টবিট সচল থাকলো টানা আধাঘণ্টা। আমরা কখনো এমনটি দেখিনি। তার আত্মা ও ইচ্ছাশক্তিটা দেখালেন তিনি জীবনের শেষ বেলায়ও। হানা আলী বলেন, আমরা শক্ত থাকার চেষ্টা করছি। আমরা খুবই কষ্ট পাচ্ছি। কিন্তু একদিক চিন্তা করে ভালোও লাগছে। বাবা এখন মুক্ত। বাবাকে বলতে চাই, তুমি নিশ্চিন্তে যেতে পারো। আমরা ভালোই থাকবো। আমরা তোমাকে অনেক অনেক ভালোবাসি। তোমাকে কৃতজ্ঞতা জানাই। তুমি আল্লাহ্‌র কাছে ফিরে যেতে পারো।-এমজমিন






মন্তব্য চালু নেই