মেইন ম্যেনু

তাজমহলে কমছে বিদেশি পর্যটক

পৃথিবীর অন্যতম সেরা স্থাপনা ধরা হয় ভারতের আগ্রার তাজমহলকে। সেই তাজমহলে এখন ধীরে ধীরে কমছে বিদেশি পর্যটকের সংখ্যা। এ নিয়ে পর্যটন মন্ত্রণালয়ও যথেষ্ট উদ্বিগ্ন। কেন এই পর্যটক সংখ্যা কমছে, তা খতিয়ে দেখা শুরু করেছে কেন্দ্রীয় সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তারা। তারা ইতিমধ্যে পর্যটক কমার ক্ষেত্রগুলো চিহ্নিত করা শুরু করেছে।

ভারতের সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় এ নিয়ে উদ্বেগও প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি-বিষয়ক মন্ত্রী মহেশ শর্মা। তিনি তাজমহলে বিদেশি পর্যটকদের আসা-যাওয়া নিয়ে একটি প্রতিবেদনও পেশ করেন সম্প্রতি। তাতে বলা হয়, ২০১২ সালে তাজমহল দেখতে বিদেশি পর্যটক এসেছিলেন সাত লাখ ৪৩ হাজার পর্যটক। ২০১৩ ও ২০১৪ সালে এই সংখ্যা ছিল যথাক্রমে ছয় লাখ ৯৫ হাজার এবং ছয় লাখ ৪৮ হাজার।

পর্যটনের ধারা, ভ্রমণ-বিষয়ক বাজার অর্থনীতি, যোগাযোগ ব্যবস্থা, সস্তায় হোটেলে থাকার ব্যবস্থা, পর্যটন কাঠামো ইত্যাদি খতিয়ে দেখা শুরু হয়েছে।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশের পর্যটকেরা বলেছেন, তাজমহলে প্রবেশের জন্য যে প্রবেশ ফি নিচ্ছে ভারত সরকার, সেটা বাংলাদেশের পর্যটকদের কাছে বেশি বলে মনে হচ্ছে। সার্কভুক্ত দেশের পর্যটকদের কাছ থেকে প্রবেশ ফি আরেকটু কম নেওয়ার জন্য ভারত সরকারের প্রতি তাদের দাবি। এতে তাজমহল দেখার জন্য বাংলাদেশের পর্যটকেরা আরও বেশি আকৃষ্ট হবে। কারণ, বাংলাদেশের যেসব পর্যটক রাজধানী নয়াদিল্লিতে যান, তারা তাজমহল দেখার ব্যাপারে আগ্রহী থাকেন। কিন্তু বেশি প্রবেশ ফি থাকায় অনেকেই অনাগ্রহী হয়ে পড়েন।-প্রথম আলো।






মন্তব্য চালু নেই