মেইন ম্যেনু

তানিয়ার হোটেলে রাত কাটানো নিয়ে এলাকায় তোলপাড় !

পরকীয়া প্রেমিককে নিয়ে হোটেলে রাত কাটিয়েছেন সিলেটের তানিয়া আক্তার। আর ঘটনাটি স্বামী দীপুর নজরে পড়লে প্রেমিকের সঙ্গে হাত মিলিয়ে পরপর দুটি মামলা করেছেন স্বামীর বিরুদ্ধে। ২২ দিন জেলও খাটিয়েছেন স্বামীকে। এরপরও মান-সম্মান রক্ষার্থে দীপু স্ত্রীর বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ করেননি। শেষে নিরুপায় হয়ে তিনি সিলেটের কোতোয়ালি থানায় করেছেন সাধারণ ডায়েরি। দায়ের করেছেন একটি মামলাও। এই মামলায় এখন পলাতক তানিয়া ও প্রেমিক জয়নাল। সিলেটের তানিয়া আক্তার ও জয়নালের প্রেম, হোটেল কক্ষে অভিসারের ঘটনা নিয়ে তোলপাড় চলছে। সামাজিক মাধ্যমেও ওই দুইজনের প্রেম ও পরকীয়া নিয়ে তোলপাড় হয়েছে। প্রায় বছর দেড়েক আগে জাকির হোসেন দীপুর সঙ্গে বিয়ে হয় তানিয়া আক্তারের।

তানিয়া সিলেট নগরীর ১০৪ শাপলা ওসমানী মেডিকেল কলোনির আতাউর রহমানের মেয়ে। আতাউর রহমান ওসমানী মেডিকেল কলেজে কুকের কাজ করেন। অপরদিকে জয়নাল আবেদীন মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া থানার ইসলাম নগরের বাসিন্দা। সিলেট নগরীর মেন্দিবাগে শ্বশুরের বাসায় স্ত্রী-সন্তান নিয়ে থাকেন এবং বর্তমানে তিনি দুই সন্তানের জনক। তানিয়া ও তার পিতৃপরিবারের সঙ্গে বিভিন্ন কারণে পরিচয় হয় জয়নালের। এ পরিচয়ের সূত্র ধরে তানিয়া ও জয়নাল একসময় পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে।

দীপুর দায়ের করা জিডি সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের আগস্ট মাসের প্রথমভাগে তানিয়া তার পিত্রালয়ে চলে গেলে আর স্বামীর ঘরে ফিরেনি। সেখানে থেকেই জয়নালের সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্ক রেখে চলেছে সে। গত বছরের ১০ই সেপ্টেম্বর তানিয়া ও জয়নাল স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে নগরীর দরগাহ গেইটস্থ হোটেল ময়রুন নেছায় উঠে। ওই হোটেলের ১০৮ নং কক্ষ ভাড়া নিয়ে তারা একে অপরের সঙ্গে মিলিত হয়। এ সময় স্বামী জাকির ও অন্যদের হাতে তারা ধরা পড়লে সেখানে মারামারির ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে পাল্টাপাল্টি মামলাও হয় সিলেট কোতোয়ালি থানায়।

এর আগে নগরীর পশ্চিম দরগাহ গেইটস্থ হোটেল হলিসাইডেও একদিন স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে অবস্থান করে তানিয়া ও জয়নাল। পরকীয়া সম্পর্কের এসব ঘটনা নিয়ে তানিয়া ও দীপু পরিবারের মধ্যে বিবাদ সৃষ্টি হলে তানিয়ার পরিবার দীপুর বিরুদ্ধে থানা ও আদালতে একাধিক মামলা করে। একটি মামলায় দীপু ২২ দিন কারাভোগও করেন। পরবর্তীতে আদালতে দীপুর দায়ের করা একটি মামলা থানায় রেকর্ড হলে ওই মামলায় বর্তমানে তানিয়া ও জয়নাল পলাতক রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় রোববার রাতে জাকির হোসেন দীপু সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানায় গিয়ে স্ত্রী তানিয়া ও তার পরকীয়া প্রেমিক জয়নাল আবেদীন অভির বিরুদ্ধে ব্যভিচারের অভিযোগ দায়ের করেন। থানার ওসি সোহেল আহমদ অভিযোগ সাধারণ ডায়েরি করে একজন অফিসারের তদন্তে দিয়েছেন। সাধারণ ডায়েরির অভিযোগটি সিলেটের লামাবাজার ফাঁড়ির পুলিশ তদন্ত করছে।

এব্যাপারে জাকির হোসেন দীপু জানিয়েছেন, ‘তানিয়া তার স্ত্রী। পিত্রালয়ে থাকা অবস্থায় তার প্রেমিক জয়নালকে নিয়ে দরগাহ গেইটের হোটেলে রাত যাপন করে। ওরা যখন হোটেল কক্ষ থেকে বের হচ্ছিল তখন বিষয়টি আমার নজরে ধরা পড়ে। আর বিষয়টি ধামাচাপা দিতে পরপর দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।’ এদিকে, রোববার আদালতে ছিল তানিয়ার দায়ের করা মামলার ধার্য তারিখ। ওই দিন জামিনে থাকা দীপু আদালতে গেলেও মামলার বাদী তানিয়া আসেনি।

এ ব্যাপারে সিলেটের কোতোয়ালি থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই ফয়েজ আহমদ জানিয়েছেন, তানিয়া ও জয়নালের বিরুদ্ধে দীপু মামলা করেছেন। ওই মামলায় তারা বর্তমানে পলাতক রয়েছে। ইতিমধ্যে জয়নাল ও তানিয়াকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালালেও তাদের পায়নি। এদিকে, তানিয়ার প্রেমিক জয়নাল আবেদীন জানিয়েছেন, তানিয়া নামের ওই মহিলাকে তিনি চিনেন না।






মন্তব্য চালু নেই