মেইন ম্যেনু

তারেক নিজেই গাড়ি চালিয়ে মা’কে নিয়ে গেলেন চিকিৎসকের কাছে

লন্ডনে সফররত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে চিকিৎসকের কাছে গেলেন তার ছেলে তারেক রহমান। মঙ্গলবার তারেক রহমান নিজেই গাড়ি চালিয়ে তাঁর মাকে সেন্ট্রাল লন্ডনের হার্লি স্ট্রিটের এক চিকিৎসকের কাছে যান।এ সময় তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমান তাঁদের সঙ্গে ছিলেন।

যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তারেক রহমানকে সঙ্গ দিতে হার্লি স্ট্রিটের ক্লিনিকে উপস্থিত ছিলেন জানিয়ে এম এ মালেক বলেন, বেগম জিয়া চিকিৎসা ও পরিবারের সাথে সময় কাটাতে লন্ডনে এসেছেন। এটা তার ব্যক্তিগত সফর। তিনি এই প্রথম চিকিৎসকের কাছে গেলেন। খালেদা জিয়া বৃহস্পতিবার ঈদের দিন সুশীল সমাজ, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিসহ সর্বস্তরের প্রবাসীদের সঙ্গে সেন্ট্রাল লন্ডনের একটি হোটেলে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন বলে জানান এম এ মালেক ।

এর আগে ১৬ সেপ্টেম্বর বুধবার লন্ডনে পৌঁছার প্রথম ও দ্বিতীয় দিন দলীয় কোনো নেতাকর্মীকে সাক্ষাত দেননি বেগম খালেদা জিয়া। তৃতীয় দিন গত শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ১০টায় তাঁর সাথে সাক্ষাত করেন যুক্তরাজ্য বিএনপির কয়েকজন নেতা। এর আগে শুক্রবার রাত সাড়ে আটটায় বেগম জিয়ার সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন উপদেষ্টা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, আব্দুল আউয়াল মিন্টু ও তার পুত্র তাবিথ আউয়াল।

এছাড়া মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত দলীয় কোনো নেতাকর্মীকে সাক্ষাত দেননি বেগম জিয়া। কিংস্টোন এলাকার একটি ভাড়া বাসায় পরিবারের সাথেই সময় কাটাচ্ছেন তিনি।

ঈদের পর খালেদা জিয়ার প্রবাসী বাংলাদেশীদের সঙ্গে মতবিনিময় ও নাগরিক সংবর্ধনা, মিট দ্য প্রেস ও মূলধারার একাধিক রাজনীতিবিদের সাথে সাক্ষাতের কথা রয়েছে। তবে সব কিছু নির্ভর করছে তার চিকিৎসকদের সাথে সাক্ষাতের সময়সূচীর ওপর। লন্ডন সফরে খালেদা জিয়ার পা ও চোখের চিকিৎসা করানোর কথা রয়েছে।

দেশের বাইরে এবারই প্রথমবারের মতো স্বপরিবারে ঈদ উদযাপন করবেন বেগম খালেদা জিয়া। ১/১১ এর প্রেক্ষাপটে দীর্ঘ ৮ বছর ধরে লন্ডনে সপরিবারে বসবাস করছেন তারেক রহমান। আর মালয়েশিয়ায় বসবাস করছেন প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী ও দুই কন্যা। তারাও বেগম জিয়ার সফর উপলক্ষে লন্ডন এসেছেন এবং এখন থেকে লন্ডনেই থাকবেন।

২০০৮ সালে লন্ডনে আসার পর ৮ বছরে তিন দফা মাকে কাছে পেলেন তারেক রহমান। প্রথমবার সাক্ষাত হয় ২০১১ সালের মার্চ মাসে লন্ডনে, দ্বিতীয়বার ২০১৪ সালে সৌদি আরবে। খালেদা জিয়া তখন পবিত্র ওমরাহ পালনের জন্য সৌদি আরব গিয়েছিলেন। একই সময় তারেক রহমানও সপরিবারে ওমরাহ পালনের জন্য সৌদি আরব যান। এরপর গত ১৬ সেপ্টেম্বর বুধবার দেখা হলো তৃতীয়বারের মতো। লন্ডন সফর শেষে আগামী ১লা অক্টোবর বেগম জিয়ার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই