মেইন ম্যেনু

তালেবান নেতা হত্যার কথা আগেই জানতো পাকিস্তান

আফগানিস্তানের তালেবান নেতা মোল্লা মানসুরের ওপর মার্কিন ড্রোন হামলার কথা পাকিস্তানের নেতৃত্বকে আগেই জানানো হয়েছিল। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তরের এক বিবৃতিতে রোববার এ কথা নিশ্চিত করা হয়েছে।

আফগান সীমান্তবর্তী পাকিস্তানের বেলুচিস্তান এলাকায় মার্কিন ড্রোন হামলায় তালেবান নেতা মোল্লা মানসুর মারা গেছেন বলে খবর বের হয়েছে।

পাক পররাষ্ট্র দপ্তরের দেয়া বিবৃতি অনুসারে, মার্কিন ড্রোন হামলার কথা আগেই পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ও সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরীফকে জানানো হয়েছিল। তবে ড্রোন হামলার মাধ্যমে পাকিস্তানের সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করা হয়েছে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে। এতে আরো বলা হয়- কেবল আলোচনার মাধ্যমে আফগানিস্তানে স্থায়ী শান্তি আসতে পারে।

এর আগে পাকিস্তানের দুই গোয়েন্দা কর্মকর্তা ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি-কে বলেন, কোয়েটার কাছে একটি টয়োটা করোলা গাড়ির ওপর ড্রোন হামলা হয়েছে। এতে দুটি দেহ এমনভাবে পুড়ে গেছে যে, তা চেনার উপায় নেই।

পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফও ব্রিটেনের রাজধানী লন্ডনে পৌঁছে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপের সময় বলেছেন, তিনি হামলার বিষয়ে আগেই অবগত ছিলেন তবে মোল্লা মানুসর নিহত হয়েছেন কিনা তা তিনি নিশ্চিত নন। নওয়াজ শরীফ বলেন, “মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি গতরাতে আমাকে ফোন করে ড্রোন হামলা সম্পর্কে জানান।” তবে এ ধরনের হামলা পাকিস্তানের সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন বলে উল্লেখ করেন নওয়াজ শরীফ।

রোববার প্রথম ভাগে জন কেরিও বলেছেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে হামলার কথা জানিয়েছিলেন যাতে সম্ভবত মোল্লা মানসুর নিহত হয়েছেন। কেরি জানান, প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার নির্দেশ অনুসারে আফগান নেতাদেরকেও এ হামলার বিষয়ে অবহিত করা হয়।

মোল্লা মানুসর নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন তালেবান নেতা মোল্লা আবদুর রউফ। তিনি জানান, পাক-আফগান সীমান্তে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

সূত্র: পার্সটুডে।






মন্তব্য চালু নেই