মেইন ম্যেনু

তিনবার ভুল ট্রাউজার পরায় নিষিদ্ধ করা হলো আকমলকে!

বিতর্ক ও ঝামেলা যেন পাকিস্তানি ক্রিকেটার উমর আকমলের নিত্য সঙ্গী। মাঠের পারফরম্যান্সের চেয়েও বিতর্কে জড়িয়ে বেশি শিরোনাম হতে অভ্যস্ত তিনি। এক ম্যাচের জন্য নিষেধাজ্ঞা পেয়ে ফের শিরোনামে আসলেন এই পাকিস্তানি ক্রিকেটার।

মঙ্গলবার কায়েদ-ই-আজম ট্রফির ফাইনালের সময় কোচ বাসিত আলির সাথে তর্কাতর্কিতে জড়িয়েছিলেন উমর। সেই বিষয়ে তার সাজা না হলেও ওই ফাইনালের সময়ই আরেক কাণ্ড ঘটানোয় উমর আকমলকে দেয়া হয়েছে এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা।

কায়েদ-ই-আজম ট্রফির ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিলো উমর আকমলের দল সুই নর্দার্ন গ্যাস পাইপলাইন ও ইউনাইটেড ব্যাংক লিমিটেড। উক্ত ম্যাচে যথাযথ পোষাক পরে মাঠে নামেননি উমর। পিসিবি কর্তৃক অনুমোদিত ট্রাউজার না পড়ে ভিন্ন ট্রাউজার পরে মাঠে নেমে যান যা কিনা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কোড অব কন্ডাক্টের লেভেল ওয়ান ভঙ্গের অপরাধ। আর তাই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১৫ জানুয়ারির প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে খেলা হচ্ছে না উমরের।

দলের ম্যানেজার ইন্তিখাব আলম বলেছেন, ‘পিসিবি জানিয়েছে, গত সপ্তাহে করাচিতে কোড অব কন্ডাক্ট ভঙ্গের কারণে উমর আকমলকে এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন ম্যাচ রেফারি। এই নিষেধাজ্ঞা পরের ম্যাচেই কার্যকর হয়। কোন ফরম্যাট বা কোন পর্যায়ের ম্যাচ তা বিবেচ্য না। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তাকে আমরা খেলাবো না। তবে পরের খেলাগুলোতে খেলানো যাবে তাকে।’

এইএকই ধরণের অপরাধের জন্য আগে দু‘বার সতর্ক করে দেয়া হয়েছিল উমরকে। এটা তার তৃতীয় অপরাধ। ম্যাচ রেফারি তাই আকমলকে শাস্তি দিয়েছেন। এ নিয়ে টানা দুই সিরিজে পিসিবির শাস্তিমূলক ব্যবস্থার মধ্যে পড়লেন উমর।

জানিয়ে রাখা ভাল, নভেম্বরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে প্রাথমিকভাবে দেল নেয়া হয়নি তাকে। অনৈতিক কার্যক্রমে জড়ানোর অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে। পরে অবশ্য অভিযোগ থেকে মুক্তি পেয়ে দলে ফিরেছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই