মেইন ম্যেনু

তিন জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

দেশের তিন জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়া, পটুয়াখালী ও ঝিনাইদহে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন। এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ১৪ জন।

শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে দুর্ঘটনাগুলি ঘটে।জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের জেলার সদর উপজেলার রামরাইল এলাকায় শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ট্রাক ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে শাহীনূর বেগম (৪৫) নামে নারী নিহত ও দুইজন আহত হয়েছেন।

নিহত শাহীনূর জেলার নবীনগর উপজেলার কনিকারা গ্রামের বাসিন্দা। আহতরা হলেন-শাহীন (৪০) ও আবুল কালাম (৬০)।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মঈনুর রহমান জানান, সকালে নবীনগর থেকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের দিকে আসার পথে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার রামরাইল এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি পণ্যবাহী ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই অটোরিকশার যাত্রী শাহনীনূর বেগম মারা যান এবং অপর দুই যাত্রী আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

পটুয়াখালী: জেলার গলা‌চিপা সড়কের আম‌খোলা এলাকায় শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বা‌সের ধাক্কায় মোটরসাই‌কেল চালক তা‌হের (২৮) নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আরো ২ আরোহী আহত হ‌য়ে‌ছেন। হতাহতদের বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

গলা‌চিপার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আ. রাজ্জাক মোল্লা দুর্ঘটনার সত্যতা নি‌শ্চিত করে জানান, সকালের দিকে আমখোলা এলাকায় একটি যাত্রীবাহী বাস বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে চালক নিহত ও দুই আরোহী আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যার হাসপাতা‌লে ভ‌র্তির পর অবস্থার অবন‌তি হওয়ায় ব‌রিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (শেবা‌চিম) পাঠা‌নো হ‌য়ে‌ছে।

ঝিনাইদহ: জেলার সদর উপজেলার নগরবাথান এলাকায় শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে বাস উল্টে লিয়াকত আলী (৪২) নামে এক পানচাষী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ১০ জন।

নিহত লিয়াকত আলী জেলার শৈলকুপা উপজেলার কানা পুকুরিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল গফুর মালিথার ছেলে। আহতরা হলেন-পাপিয়া, সালমা খাতুনসহ অন্তত ১০ জন যাত্রী। তাদের সবার বাড়ি ঝিনাইদহ জেলায়।

ঝিনাইদহ সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) ইসমাইল হোসেন জানান, সকালে চুয়াডাঙ্গা থেকে রাতুল পরিবহনের একটি বাস ঝিনাইদহে আসছিল। পথিমধ্যে নগরবাথান এলাকায় পৌঁছালে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কা দিয়ে খাদে উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই লিয়াকত আলী নামে ওই পানচাষী নিহত হন। খবর পেয়ে ঝিনাইদহ দমকলবাহিণী একটি ইউনিট ঘটনস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পুলিশ নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই