মেইন ম্যেনু

তিন বছরে ২১ বার বিয়ে !

বয়স মাত্র বার। তিন বছরে বিয়ে হয়েছে ২১ বার। সবাই কিছুদিন ব্যবহার করে ছুড়ে ফেলেছে তাকে। কারো কাছেই তার আবাস স্থায়ী হয়নি। মেয়েটির নাম শিরিন।

গল্পটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ সিরিয়ার। ভয়ঙ্কর আর অমানবিক এমন সব গল্পই ওখানে তৈরি করেছে দেশটিতে যুদ্ধরত কয়েকটি গ্রুপ। কেবল জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের ভয়াবহতার কথা মিডিয়ায় এলেও পশ্চিমা বিশ্ব বা অন্য দেশগুলোর তৈরি অমানবিক গল্পগুলো অজানাই থাকছে বিশ্বের কাছে।

আইএস বা আসাদকে উচ্ছেদের নামে ত্রিমুখী যুদ্ধক্ষেত্র তৈরি হয়েছে দেশটি। চার বছর ধরে দেশটিতে আসাদ সরকারকে সরানোর নামে যুদ্ধ করছে আমেরিকা ব্রিটেন ফ্রান্সসহ ৬০ টি দেশ। এদের নৃশংসতার শিকার হচ্ছে কোটি মানুষ। এখন পর্যন্ত দেশটিতে যুদ্ধের ফলে নিহত হয়েছে ২ লাখ ৩০ হাজার মানুষ। দেশ ছেড়েছে আরো কয়েক লাখ।খবর-আস

যুদ্ধের ফলে দেশটিতে নেমে এসেছে তীব্র দরিদ্রতা। যারা সেখানে রয়ে গেছেন তারা খাবার ও অর্থ যোগাতে তারা নানা রকম অমানবিক কাজ করে যাচ্ছেন। শিরিন নামের মেয়েটির ভাগ্যে এমনটিই ছিল। প্রথমে দরিদ্রতার কারণে শিরিনের বাবা ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে বিয়ে দেন এক ধনি ব্যক্তির কাছে। তিনি কিছুদিন রেখে আবার অন্যজনের কাছে বিয়ে দেন। এভাবেই শিরিন বিয়ের নামে বিক্রি হয়েছে ২১ বার। প্রথমে তার বয়স ছিল ১২। আর এখন হয়েছে ১৫। সে জানেনা, আরো কতবার বিয়ের পিড়িতে বসতে হবে তাকে। তাদের নিয়ে আর কতদিন চলবে এই অমানবিক খেলা।






মন্তব্য চালু নেই