মেইন ম্যেনু

তিন সন্তানকে কুয়ায় ছুঁড়ে ফেলে মা নিজেও ঝাঁপ দিলেন!

তিন নাবালক সন্তানকে পাতাল কুয়াতে ছুঁড়ে ফেললেন মা প্রিয়াঙ্কা বালাজি ওয়াংখেড়ে, আর তারপর নিজেও আত্মহননের পথ বেছে নিলেন ওই কুয়োতেই ঝাঁপ দিয়ে। ঘটনাটি গত সোমবার, ভারতের মহারাষ্ট্রের মারাঠওয়ারা অঞ্চলে এমন ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয় পুলিশের পক্ষ থেকে আজ ২৫ মে বুধবার একথা জানা গেছে।

দু’ই পুত্র – প্রতীক (৩ বছর) ও কপিল (৫ বছর) এবং একমাত্র কন্যা সাক্ষি (৭ বছর)-কে হত্যা করার পর প্রিয়াঙ্কার নিজেরও কুয়ায় ঝাঁপ দেয়ার ঘটনায় উঠে আসছে পণ প্রথার অভিযোগ।

এক পুলিশ অফিসারের কথায়,”প্রিয়াঙ্কার ভাই পুলিশকে বলেছে যে তার বোনের শ্বশুর বাড়ির লোকজন তার সঙ্গে প্রায়শই অশান্তি করতেন তার বাপের বাড়ি থেকে এক লক্ষ টাকা পণ নিয়ে আসার জন্য”। ফলে এর থেকেই আঁচ পাওয়া যায় যে ঠিক কি ঘটে থাকতে পারে।

পুলিশ সুত্রে জানা গেছে যে প্রিয়াঙ্কার স্বামী বালাজি ওয়াংখেড়ে, শ্বশুর গণপত ওয়াংখেড়ে এবং শাশুড়ি লীলাবতী ওয়াংখেড়ে এই মুহুর্তে স্থানীয় আদালতের নির্দেশে পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধীর ৩০৬ (আত্মহত্যায় প্ররোচনা) ও ৪৯৮ (বধূ নির্যাতন) ধারায় মামলা করা হয়েছে।

গতকাল, মঙ্গলবার তিন সন্তানসহ প্রিয়াঙ্কার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।-জিনিউজ






মন্তব্য চালু নেই